আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 11 মিনিট আগে

সরকারের মধ্যবর্তী কিংবা আগাম নির্বাচনের কোন ধরনের পরিকল্পনা নেই বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, 'নিয়মমাফিক যথা সময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। যার আয়োজন করবে নির্বাচন কমিশন।'

obaydul kader al

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, 'সরকার যেকোন সময় নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত। একমাস পরও নির্বাচন হলেও সরকার প্রস্তুত। তবে আবারো বলছি, আগাম নির্বাচনের কোনো সম্ভাবনা নেই। সরকারের পরিকল্পনাও নেই। যখনই নির্বাচন হোক না কেন আমরা প্রস্তুত আছি। আমরা চাই বিজয়ের মাস ডিসেম্বরেই হোক জাতীয় নির্বাচন। তবে তারিখ নির্ধারণের এখতিয়ার শুধুই নির্বাচন কমিশনের। '

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, 'আওয়ামী লীগ অনেক আগে থেকেই নির্বাচনী প্রস্তুতি শুরু করেছে। প্রস্তুতি হিসেবে ইতোমধ্যে জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে সকল প্রার্থীর খসড়া তৈরি করা হয়েছে। মোট কথা আমরা প্রস্তুত আছি।'

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুদকের জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে যে মামলা চলছে সেটি আওয়ামী লীগ সরকার করেনি। মামলাটি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে করা। আবার সেই মামলায় যদি তার সাজা হয় তাহলে তারা বলবেন, সরকার বিচার বিভাগে হস্তক্ষেপ করেছে। আর সাজা না পেলে বিচার বিভাগকে স্বাধীন বলবেন তারা।'

সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের বিষয়ে বিএনপির মন্তব্যের সমালোচনা করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, 'বিএনপি বলছে একটা লোক মারা যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই নির্বাচন করছে যাচ্ছে সরকার। কিন্তু নির্বাচন তো হতে হবে। বিএনপি হয়তো প্রস্তুত নয় এজন্যই এসব বলছে তারা। গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচনেও তারা আসতে পারেনি। তবে নির্বাচন থেমে থাকেনি কখনো থাকবেও না।'

মঙ্গলবার বিএনপি কর্মীদের গাড়ি ভাংচুর ঘটনার নিন্দা জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, 'বিষয়টি নিয়ে আমরা সন্দিহান। বিএনপি কি তবে আবারো সেই সহিংসতার পথ বেছে নিল? আমার মনে হচ্ছে বিএনপি আবারো জ্বালাও, পোড়াও ও সহিংসতার পথ বেছে নিচ্ছে। সাধারণ মানুষের গাড়ি পোড়ানো হচ্ছে কেন। এতে লাভ কি? তারা আন্দোলন করতে পারছেন না এটা তাদের ব্যর্থতা।'

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচন প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'নির্বাচন প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী হবে। মেয়র পদ ইতোমধ্যে শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে। স্থানীয় সরকারের নির্বাচন আইন অনুযায়ী ৯০ দিনের মধ্যেই নির্বাচন হবে। নিয়মের বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই।'

সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী সম্পর্কে সেতুমন্ত্রী বলেন, 'আমরা কোন ধরণের চমকের কথা ভাবছি না। আমরা জয় হওয়ার যোগ্য প্রার্থী দিতে চাই। তবে রাজনৈতিক নেতা এবং আওয়ামী লীগের মনোভাবাসম্পন্ন লোক কিন্তু কোন নেতা নয় এমন লোকজনের কথাও ভাবা হচ্ছে।'

Add comment

Security code
Refresh