আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 05 মিনিট আগে

দেশের সকল মোবাইল অপারেটরদের সেবার মান নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি জানান, যখন-তখন কল ড্রপ হচ্ছে। এমনকি বাসা থেকে অফিস যেতেই মোট আটবার কল ড্রপ হচ্ছে।

mostofa jabbar new

রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে মঙ্গলবার বাংলাদেশে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন আয়োজিত তরঙ্গ নিলাম অনুষ্ঠান শেষে এসব কথা বলেন তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, 'ফোনে কথা বলতে গেলে কখন আমার কল ড্রপ হবে তার কোনো গ্যারান্টি আমি পাইনা। একজন মন্ত্রী তার অফিসে বসে ঠিকভাবে কথা বলতে পারে না,। বাসায় থেকে অফিসে যেতেই কমপক্ষে আটবার কল ড্রপ হচ্ছে।'

মোস্তাফা জব্বার বলেন, 'এতোদিন ধরে বলা হচ্ছিল নেট নিউট্রালিটি নেই। তারা অভিযোগ করছিল তরঙ্গ নেই বিধায় ভালো সেবা দেয়া সম্ভব হচ্ছিল না। বর্তমানে কিন্তু তরঙ্গের দরজা খুলেছি। টেক নিউট্রালিটি দেয়া হচ্ছে। দয়া করে আপনারা যারা অপারেটর আছেন তারা গ্রাহকদের বিষয়টা উপলব্দি করেন। সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করেন।'

মন্ত্রী অপারেটরদের শাসিয়ে দিয়ে বলেন, 'আমাদের দেশে মালয়েশিয়ার চেয়ে ১৫ গুণ গ্রাহক অথচ আপনি তরঙ্গ কিনবেন না। গ্রাহকদের কোয়ালিটি দেবেন না। এটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য হবে না।'

টেলিকম অপারেটরগুলোকে সেবার মান বাড়ানোর আহ্বান জানান মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, 'দেশের মানুষ অর্থ দিয়ে আপনাদের সেবা নিতে কোনো রকমের কার্পণ্য করে না। কিন্ত সেবার ক্ষেত্রে ক্রুটি থাকছে। এটা মেনে নেয়া যায় না। স্পষ্ট করে বলছি, গুণগত মান পাওয়া গ্রাহকদের সবোচ্চ অগ্রাধিকার। এটা পূরণ করতে হবে।'

ফোরজি টেলিকম নেটওয়ার্কের জন্য টেলিকম অপারেটরদের কাছে তরঙ্গ বিক্রির নিলাম অনুষ্ঠিত হয় আজ। নিলামে ১৮০০ মেগাহার্জ ব্যান্ডে ৫ মেগাহার্জ তরঙ্গ নিয়ে সবার চেয়ে এগিয়ে গ্রামীণফোন। গ্রামীণফোনের মোট তরঙ্গ এখন ৩৭ মেগাহার্জ। বাংলালিংক ২১০০ মেগাহার্জ ব্র্যান্ডে ৫ মেগাহার্জ তরঙ্গ এবং ১৮০০ মেগাহার্জ ব্র্যান্ডে ৫.৬ মেগাহার্জ তরঙ্গ ক্রয় করে। বাংলালিংকের মোট তরঙ্গ ৩০.৬ মেগাহার্জ। তরঙ্গ বিক্রি করে বিটিআরসির মোট আয় ৫২৬৮.৫১ কোটি টাকা। বিটিআরসি বলছে, ভ্যাটসহ সর্বমোট আয় ৫২৮৯.০৮ কোটি টাকা।

Add comment

Security code
Refresh