আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 55 মিনিট আগে

‘আমাকে নাস্তিক বলো? আমি কোরআন শরিফ শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত নিখুঁতভাবে পড়েছি। সেখানে একটি আয়াত আছে, তুমি যদি একজনকে মারো, তুমি সারা মানবজাতিকে হত্যা করছো।’ বুধবার বিকালে হাসপাতাল থেকে ফিরে এভাবেই শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন অধ্যাপক জাফর ইকবাল।

zafar iqbal stubbed in sylhet

সিলেটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্বদ্যিালয় ক্যাম্পাসের মুক্তমঞ্চে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে কথা বলেন এ জনপ্রিয় শিক্ষক ও লেখক। তিনি বলেন, একজন মানুষ কত দুঃখী হতে পারে যার মনে হয়, একজনকে মেরে বেহেশতে যাবে। পৃথিবীতে তাকিয়ে দেখো। কী সুন্দর। এ সুন্দর পৃথিবীর কিছুই সে দেখে না, জানে না। কেবল জানে একজনকে মারলে বেহেশতে যাবো।

হামলাকারীর ওপর বিন্দুমাত্র রাগ নাই, বরং মায়া আছে, করুণা আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ওই ছেলেটি বেহেশতে যাবে বলে আমাকে আঘাত করেছিলো। এটা তার মাথায় ঢুকানো হয়েছে। আর তুমি, যে কিনা রিমাণ্ডে আছো, তোমার মা, ভাই, বাবা রিমাণ্ডে। আমার সঙ্গে কথা বলতে আসো। অস্ত্রটা বাসায় রেখে আসো। আমি শুনতে চাই, কেন তোমার এত কষ্ট।

তিনি বলেন, কোরআনে আছে, তুমি যদি একজনকে মারো, তুমি সারা মানবজাতিকে হত্যা করছো। কেমন করে তারা এত বড় দায়িত্ব ঘাড়ে নেয়। কে তোমাদের এসব বুঝিয়েছে। যারা বুঝিয়েছে তারা নিশ্চিন্তে আছে। আর তুমি রিমাণ্ডে।

এর আগে আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) থেকে ছাড়পত্র পান জাফর ইকবাল। এরপর দুপুর ১২টা ৪৫ মিনিটে নভোএয়ারের একটি বিমানে করে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন তিনি। সেখানে শাবিপ্রবির শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা তাকে বরণ করে নেন।

Add comment

Security code
Refresh