আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 27 মিনিট আগে

বরিশাল সিটি করপোরেশনের (বিসিসি) প্রশাসনিক কর্মকর্তাসহ ৭ পদে রদবদল করেছে কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার দুপুরে সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খাইরুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

barisal ciry corporation

করপোরেশনের কর্মকর্তা কর্মচারীরা জানান, ইতিপূর্বে সাত কর্মকর্তার মধ্যে ছয় জনের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ ছিল। সেই কারণে তাদের বর্তমান পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে অন্য পদে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

তবে কর্তৃপক্ষ বলেছে অন্য কথা, একটি বিশেষ সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী করপোরেশনের কাজের গতি বাড়ানোর লক্ষ্যে রদবদল করা হয়েছে।

বিসিসি অফিস সূত্র জানায়, গত ২ ডিসেম্বর করপোরেশনের চতুর্থ পরিষদের জরুরি সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রশাসনিক কর্মকর্তার চলতি দায়িত্বে থাকা আসমা বেগম রুমীকে তার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে একই শাখায় বিশেষ কাজে নিয়োজিত করা হয়েছে এবং প্রশাসন শাখার পরিসংখ্যানবিদ স্বপন কুমার দাসকে প্রশাসনিক কর্মকর্তার দায়িত্ব দেয়া হয়।

পাশাপাশি হাট-বাজার ও স্টল শাখার সুপারিনটেনডেন্ট নুরুল ইসলামকে তার চলতি দায়িত্ব থেকে সাময়িক অব্যাহতি দিয়ে প্রশাসনিক শাখায় বিশেষ কর্মে নিয়োজিত করা হয়েছে। অবৈধ উচ্ছেদ শাখায় কর্মরত উচ্চমান সহকারী জাহাঙ্গীর হোসেনকে সাময়িক অব্যাহতি দিয়ে প্রশাসনিক শাখায় বিশেষ কর্মে নিয়োজিত করা হয়েছে, করপোরেশনের হিসাব বিভাগের বাজেট কাম হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা মশিউর রহমানকে সাময়িক অব্যাহতি দিয়ে প্রশাসনিক শাখায় বিশেষ কর্মে নিয়োজিত করা হয় এবং একই সাথে সহকারী হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা (বাজেট ও অডিট) মো. আক্তারুজ্জামানকে অন্তবর্তীকালীন সময়ের জন্য বাজেট কাম হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তার দায়িত্ব দেয়া হয়।

এছাড়া বরিশাল সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা দীপক লাল মৃধাকে তার দায়িত্ব থেকে সাময়িক অব্যাহতি দিয়ে প্রশাসনিক শাখায় বিশেষ কর্মে নিয়োজিত করা হয়েছে।

যাদের অব্যাহতি দেয়া হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত শ্রমিক দিয়ে বেতন উত্তোলনসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে বলে জানা গেছে।

বরিশাল সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. খাইরুল হাসান বলেন, ‘করপোরেশনের কাজের গতি বাড়ানোর জন্য একটু রদবদল করা হয়েছে। এছাড়া অন্যকিছু নেই এখানে।’

Add comment

Security code
Refresh