আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 27 মিনিট আগে

সাধারণত আর্থিত সীমাবদ্ধতার কারনেই বিয়ে করতে পারে না সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রাপ্ত বয়স্ক ছেলেরা। কারণ বিয়ের জন্য একজন ছেলেকে দেনমোহর হিসেবে গুণতে হয় লাখ লাখ টাকা। তবে সম্প্রতি সামান্য দেনমোহরের বিনিময়ে কন্যাকে বিয়ে দিলেন আমিরাতের এক বাবা।

arab amirat marrge

দেশটির আল আইন এলাকার এক বাবা তার ছয় কন্যার বিয়ের জন্য বিশেষে দেনমোহর নির্ধারণ করে দিয়েছেন। তার কন্যাদের বিয়ের জন্য দেনমোহর হিসেবে জামাতাদের কাছে এক কাপ অ্যারাবিয়ান কফি ও একটি খেজুর দাবী করেছেন তিনি।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক পোস্টে এই দেনমোহরের কথা ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। স্ট্যাটাসে তিনি বরদের ওপর আর্থিক বোঝা কমাতে এই উদ্যোগ নিয়েছেন বলে জানান।

দেখা গেছে, বর্তমানে আমিরাতে বিয়ের খরচ এতো বেশি যে এতে করে অনেকে ছেলেকেই বিয়ের বয়স পার হয়ে গেলেও দেনমোহর পরিশোধের অভাবে বিয়ে না করে থাকতে হচ্ছে। অথবা এ থেকে বাঁচতে স্থানীয় নন এমন মেয়েদের বিয়ে করছেন সেখানকার যুবকরা।

দেশটির বিয়ে সংক্রান্ত একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান জানায়, আরবে গড়ে প্রতিটি বিয়েতে ৬৪ লাখ ২৭ হাজার টাকার মতো খরচ করে আমিরাতি পরিবারগুলো। এ তুলনায় দেশটিতে থাকা পশ্চিমা প্রবাসীরা বিয়েতে খরচ করেন মাত্র ১৫ লাখ ৬৭ হাজার।

প্রসঙ্গত,এর আগে রাষ্ট্রীয় ঘোষণায় আমিরাতে প্রয়াত প্রেসিডেন্ট শেখ জায়েদ দেনমোহরের পরিমাণ সর্বোচ্চ সোয়া চার লাখ টাকা ধার্য করে দিয়ে গেছেন । পাশাপাশি ডিভোর্সের ক্ষেত্রে গুণতে হবে অতিরিক্ত প্রায় ছয় লাখ ৩৪ হাজার টাকা।

আপনি আরও পড়তে পারেন

বজ্রপাতের রাজধানী ভেনেজুয়েলার মারাকাইবো!

ছাত্র হিসেবে কেমন ছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি

নায়িকা থেকে ভিখারী!

পুরো গ্রামের জনসংখ্যা মাত্র একজন!

Add comment

Security code
Refresh