আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 27 মিনিট আগে

শোনে অবাক হবেন অনেকে। অনেকে আবার না দেখে বিশ্বাস করতে চাইবেন না। কিন্তু খবরটি বিশ্বাসযোগ্য মনে না হলেও সত্য। নাটোরের বড়াইগ্রামে একটি খেজুর গাছে একের পর এক ১৩ টি মাথা গজিয়েছে। অর্থাৎ গাছ একটি হলেও তার আছে ১৩টি মাথা!

palm trees

নাটোরের বড়াইগ্রামে হাটিকুমরুল মহাসড়কের রাজাকার মোড় থেকে আধা কিলোমিটার উত্তরে বড়াইগ্রাম ডি ইউ দাখিল মাদরাসার পাশেই দাঁড়িয়ে আছে গাছটি। ১৩টি মাথা থাকলেও গাছটির চারটি মাথা এখনো খুব ছোট।

এটির মালিক স্থানীয় বাসিন্দা রমেছা বেওয়া নামের এক লোক। গাছটি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'প্রথমে গাছটিতে একটিই মাথা ছিল। ওই এক মাথাতেই পাঁচ বছর রস সংগ্রহ করি। পরে এক এক করে মাথা গজাতে শুরু করে। এখন গাছটিতে ১৩টি মাথা থাকলেও কোনটিতেই আর রস সংগ্রহ করি না। '

এই গাছের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে কৃষি ইনস্টিটিউটের কৃষিবিদ খয়ের উদ্দিন মোল্লা জানান, উদ্ভিদের বর্ধিতাংশে এপিকাল টিস্যু থাকে। এ টিস্যু যদি ভেঙে যায় তাহলে সেখানে মিয়োসিস প্রক্রিয়ায় কোষ বিভাজিত হয়ে দুটি ডগা বা মাথার সৃষ্টি হয়। এক্ষেত্রে হয়তো একাধিকবার বিভাজন ঘটে থাকতে পারে। এ গাছটির ক্ষেত্রেও এমনটি ঘটেছে।

বর্তমানে নাটোরের বড়াইগ্রামের বিচিত্র এ গাছটি দর্শনীয় গাছ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন গাছটি দেখতে এখানে আসছে। দূর থেকে হিন্দু ও বেশ কয়েকটি ধর্মের লোকেরা গাছটিকে পুঁজো করার জন্যও আসছেন জানিয়েছে এলাকাবাসী।

আপনি আরো পড়তে পারেন

শিশুদের নাম রেখে ৫০ লাখ টাকা আয়!

দুই পাইথনের মারামারি!

বিস্ময়কর গরুর জাত ‘বেলজিয়ান ব্লু’

মাত্র মাত্র ১২ বছর বয়সেই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি!

টাকার বিনিময়ে কারাভোগের অভিজ্ঞতা!

Add comment

Security code
Refresh