আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 51 মিনিট আগে

অ্যারাবিয়ান এক্সক্লুসিভ ড্রিংক ‌‌‌‌'গাওয়া' যা মূলত সম্ভ্রান্ত আরবরাই পান করে থাকেন। বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠান, বিজনেস মিটিং, পবিত্র রমজানে তারাবী নামাজের বিরতিতে এবং দুই ঈদসহ সম্ভ্রান্ত আরবরা প্রতিদিনই এটি পান করে থাকেন। বাসাবাড়িতে টেবিলের চেয়ে নিচে বসে কার্পেটের ওপর দস্তরখানা বিছিয়ে পরিবারের সবাই একসঙ্গে বসে পান করে থাকেন আরবরা। কোনো কোনো রেস্তোরাঁর একপাশে নিচে বসে গাওয়া খাওয়ার ব্যবস্থা থাকে। সচেতন মানুষ মাত্রই এর স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে জানতে এবং নিয়মিত এই গাওয়া পান করতে অাগ্রহী হবেন।

kahwa recipe

গাওয়া কেমন?

গাওয়া দেখতে গোল্ডেন কালারের। শাহী মশলার মিশ্রণ থাকায় এটি অত্যন্ত সুগন্ধময়। চা বা কফির ফ্লেভারের চেয়ে এর স্বাদ সম্পূর্ণ অন্যরকম। অার উপকারিতা তো অবিশ্বাস্য!

গাওয়া খেলে কী হয়?

গাওয়া শরীরের অতিরিক্ত ফ্যাট ও চর্বি কমাতে সাহায্য করে। অধিকাংশ মেডিকেল গবেষণায় প্রমাণিত হয়, এটি টাইপ-২ ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ, ক্যান্সারসহ আরো অনেক রোগ প্রতিরোধ করে। পান করার পর মূহূর্তেই শরীরে ফিরে আসে চনমনে সজিবতা। কর্মক্ষমতা বাড়নো এবং পৌরুষ ধরে রাখতে আরবরা এটি নিয়মিত পান করে থাকেন।

এবার জেনে নেই রেসিপি-

গাওয়া তৈরি করা অত্যন্ত সহজ। গরম পানিতে পরিমাণ মতো গাওয়া (পাউডার) মিক্স করে নিন। সামান্য সময় নেড়ে গরম গরম পান করুন। এই পানীয়তে কোন দুধ, চিনি মেশাতে হবে না। খেতে মিষ্টি না হলেও এর স্বাদ অসাধারণ। পান করার পর অাপনার মুখ থেকে সুগন্ধ বেরুবে দিনভর। আরবীয়রা এর সাথে খেয়ে থাকে বিভিন্ন ধরনের খেজুর। যেমন আজওয়া, আম্বর, মরিয়ম ও অন্যান্য।

ম্যানুয়ালি গাওয়া তৈরির নিয়ম-

পাত্রে চার কাপ পানি নিয়ে এতে এক চিমটি দারুচিনি গুঁড়ো, হাফ চা চামচ সবুজ চা দিয়ে ফুটতে দিন। পানি ভালোভাবে ফুটলে এতে দিয়ে দিন সামান্য জাফরান ও স্বাদমত চিনি। এরপর দুইটা এলাচ গুঁড়ো (সবুজ এলাচ হলে ভাল হয়) ও চারটা কাজুবাদাম কুচি দিয়ে ঢাকনা দিয়ে পাত্রটি ঢেকে দিন। কয়েকমিনিট পর কাঁপে বা মগে নিয়ে খেজুরের সাথে পরিবেশন করুন সুস্বাদু আরবীয় ড্রিঙ্কস গাওয়া। গাওয়া পাউডার যাদের নাগালের বাইরে তারা এই পদ্ধতিতে চেখে নিতে পারেন পানীয়টি।

advertisement

Add comment

Security code
Refresh