আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 53 মিনিট আগে

বাঙালি মানেই 'মাছে ভাতে বাঙালি'। যদিও সেটা আর বলে দিতে হয় না। কিন্তু অনেকেই ভাবেন প্রতিদিন মাছ? এতে কি কোন সমস্যা হতে পারে? পুষ্টি চার্ট কি বলে? এসব প্রশ্নের উত্তরে বলছি, প্রতিদিনই মাছ খেতে পারেন নিশ্চিন্তে। আমেরিকান হার্ট এসোসিয়েশনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, যারা নিয়মিত মাছ খান তাদের হৃদরোগের সম্ভাবনা কমে প্রায় পঞ্চাশ শতাংশ। আর সুস্থ থাকার পাশাপাশি ফিট থাকার সম্ভাবনাও বাড়ে।

eating fish

ছোট মাছে চোখ ভাল থাকে এটা প্রায় সকলেরই জানা। কিন্তু জানেন কি, মাছে থাকে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড যা রক্তে থাকা ফ্যাট কমায় আবার হার্টের রোগের ঝুঁকিও কমায়। এই ফ্যাটি এসিড চুল ও ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতেও পটু। পুষ্টিগুণে তাই মাছ অনন্য।

কম বয়সী ছেলেমেয়েদের অবসন্নতা একটি প্রকট সমস্যা। আর নিয়মিত মাছ খেলে মানসিক অবসাদ কমে আসে, তাই এই বয়সীদের মাছ খাওয়া খুবই জরুরি।

মাছে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন 'ডি', হাড় ও দাঁত গঠনে যা অত্যন্ত জরুরি। সামুদ্রিক মাছে ভিটামিন 'ডি' এর পরিমাণ বেশি থাকে বলে বিশেষজ্ঞরা সামুদ্রিক মাছ বেশি খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। এছাড়াও হাড়ের বিভিন্ন রোগের বিরুদ্ধে মাছে থাকা উপাদানগুলি বেশ কাজে দেয়।

ফিট থাকার জন্য চিকিৎসকরা নিযমিত মাছ খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন, কেননা নিয়মিত মাছ খেলে শরীর সহজে ক্লান্ত হয় না। আর আমাদের দেশে যেহেতু মাছের প্রাচুর্য আছে তাই বেশি বেশি মাছ খেতে অসুবিধা তো নেই। বরং মাছ খান, সুস্থ থাকুন।

Add comment

Security code
Refresh