আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 15 মিনিট আগে

দাঁত সাদা হওয়া নিয়ে কতোজনের কতো অনুযোগ থাকে। কিছুতেই দাঁত সাদা হয় না। কেউ কেউ আবার ডাক্তারের শরণাপন্ন হন। কিন্তু চাইলে বাজারে পাওয়া যাওয়া নির্দিষ্ট কিছু ফলমূল, শাকসবজি খেয়েই আপনি আপনার দাঁত সাদা রাখতে পারেন।

দাঁত সাদা রাখতে কমলালেবুর তুলনা নেই। এই ফলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যাসিড। যা দাঁতের দাগ দূর করে দাঁতকে করে উজ্জ্বল সাদা। তবে খুব বেশি কমলা ঠিক নয়, এতে দাঁতের উপরিভাগে ক্ষত সৃষ্টি হতে পারে।

পেঁয়াজ দাঁতের জন্য খুবই উপকারী। পেঁয়াজে আছে অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টিসেপটিক। এটি খেলে দাঁতে কোনো দাগ হয় না। বরং দাঁত হয় ঝকঝকে সাদা।

কাঁচা গাজর দাঁতের জন্য দারুণ উপকারী। দাঁতের ফাঁকে আটকে থাকা খাদ্যকণা বের করে নিয়ে আসতে গাজরের জুড়ি নেই। আর গাজর দাঁত ও মাড়ির স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

বাদাম আপনার দাঁতকে ঝকঝকে করতে সাহায্য করে। বাদাম একটি শক্ত খাবার, ফলে বাদাম চিবিয়ে খেলে দাঁত শক্ত হয়। বিকেলের নাস্তায় বাদাম খাওয়া ভালো। বাদামে দাঁতের ক্ষয় পূরণ হয়।

গাজরের মতো আপেলও বেশ উপকারী দাঁতের জন্য। আসলে কামড়ে খাওয়া যায় এমন সব খাবারই দাঁতের জন্য উপকারী। আপেল খাওয়ার সময় মুখ থেকে যে পরিমাণ লালা নিসৃত হয় তাতে মুখের অনেক ব্যাকটিরিয়া ধ্বংস হয়।

সাদা রংয়ের পনির দাঁত ও দাঁতের মাড়িকে শক্তিশালী করে। কারণ এতে আছে প্রচুর ক্যালসিয়াম।

বেশি বেশি পানি খেলে মুখ পরিষ্কার থাকবে এটা বলাই বাহুল্য। তাই বেশি বেশি পানি পান করুন, তবে সোডা মেশানো পানি খাওয়া থেকে সাবধান। কারণ এতে দাঁতের এনামেল ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

সবশেষে বাকি থাকে দুধ। দাঁতের স্বাস্থ্যের জন্য দুধ দারুণ উপকারী। এতে থাকা ক্যালসিয়াম দাঁতকে শক্তিশালী করার পাশাপাশি দাঁতকে সাদা ও উজ্জ্বল করে। এবং দাঁতের শক্তি বৃদ্ধি করে।

 

Add comment

Security code
Refresh


advertisement