আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 27 মিনিট আগে

বাঙালি জীবনে শতরঞ্জির ব্যবহার বহুকাল আগে থেকেই। আধুনিক সময়ে এসে এই শতরঞ্জি আরও আকর্ষণীয় রূপ লাভ করেছে। ঘরের প্রায় সবখানেই শতরঞ্জি ব্যবহার করা যায়। আপনার ঘরের সৌন্দর্য বাড়াতে শতরঞ্জির বিকল্প খুঁজে পাওয়া ভার।

ঘরের ভিন্ন ভিন্ন জায়গার জন্য রয়েছে আলাদা আলাদা নানান ডিজাইনের শতরঞ্জি। ঘরের মেঝে, দেয়াল, সিলিং সবখানেই এটি লাগাতে পারেন। শুধু উপযুক্ত স্থানের জন্য উপযুক্ত শতরঞ্জিটি বাছাই করুন। একেবারেই বদলে যাবে ঘরের পরিবেশ।

প্রকৃতিতে এখন শীতকাল চলছে। তাই এখনই হতে পারে শতরঞ্জির কার্যকর ব্যবহার। ঘরের যে জায়গাটুকুতে হাটা-চলা বেশি হয়, সেখানে শতরঞ্জি বিছিয়ে দিন। ঠাণ্ডা মেঝে আর পায়ের নিচে পড়বে না।

বাচ্চাদের ঘরের পুরো অংশেই শতরঞ্জি বিছিয়ে দিতে পারেন। তাহলে বাচ্চার জন্য শীতকালীন দুশ্চিন্তা থেকে অনেকখানি রেহাই পাবেন আপনি। শুধু খেয়াল রাখবেন, শতরঞ্জিটি যেনো বাচ্চার পছন্দের রঙের হয়।

ডাইনিং টেবিলও সাজানো যেতে পারে শতরঞ্জি দিয়ে। তবে পুরো টেবিল জুড়ে শতরঞ্জি না বিছিয়ে শুধুমাত্র প্লেট, গ্লাস, বাটি ইত্যাদি রাখার জন্য ছোট ছোট আকারের শতরঞ্জি ব্যবহার করুন।

বেডরুমের খাটের পাশে, ড্রইং রুমের মাঝখানে বড় আকারের শতরঞ্জি বিছালে বেশ ভালো ও আধুনিক দেখা যায়।

তবে সবসময় ঘরের আয়তন, আসবাব পত্রের আকৃতি ও রঙের বিষয়টি বিবেচনায় রেখে শতরঞ্জি নির্বাচন করুন। ঘর হয়ে উঠবে আকর্ষণীয়।

Add comment

Security code
Refresh