আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 10 মিনিট আগে

যে পণ্য দিয়ে বাজার মাত করার স্বপ্ন দেখেছিলো স্যামসাং, সেই পণ্য নিয়ে তাদের এবার পস্তাতেই হচ্ছে। বলা হচ্ছে স্যামসাংয়ের নতুন পণ্য নোট সেভেনের কথা। এক সেপ্টেম্বর থেকে পণ্যটি বিক্রি শুরু করে স্যামসাং। ১০ লাখ ইউনিট বিক্রির পর জানা যায়, ফোনটির ব্যাটারিতে সমস্যা আছে। ৩৫টি ফোন বিস্ফোরণও ঘটে।

Samsung Galaxy Note 7

এই পরিস্থিতি বিশ্বের বড় বড় কয়েকটি বিমান পরিবহন সংস্থা তাদের বাহনে নোট সেভেন ব্যবহার ও চার্জে বাড়তি সতর্কতা গ্রহণ করেছে। একটি সংস্থা তাদের বিমানে নোট সেভেন পুরোপুরি নিষিদ্ধ করার কথাও চিন্তা করছে।

স্যামসাং প্রথম দফায় মোট ২৫ লাখ ইউনিট গ্যালাক্সি সেভেন তৈরি করেছিলো। সেখান থেকে বিক্রি করা হয় ১০ লাখ ইউনিট। পরে স্যামসাং লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির এই ফোনটি বাজার থেকে প্রত্যাহার করে নেয়। যারা কিনেছিলো, তাদেরকে নতুন ফোন দেয়ার ঘোষণাও দেয় প্রতিষ্ঠানটি।

নোট সেভেন আদৌ আর বাজারে ছাড়া যাবে কিনা, সেটা নিয়েই এখন দেখা দিলো নতুন জটিলতা। ব্যাটারির সেল ঠিক করে আবার বাজারে ছাড়া হলেও, গত কয়েকদিনে যে ‘বদনাম’ হলো সেটা স্যামসাং কিভাবে কাটিয়ে উঠবে, সেটাই এখন বড় প্রশ্ন।

ফেডারেল অ্যাভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন লাগেজের ভিতরে করেও নোট সেভেন বহনে সংস্থাগুলোকে সতর্ক করে দিয়েছে। সব মিলিয়ে যে পণ্য দিয়ে বাজার মাত করার চিন্তা করছিলো স্যামসাং, সেই পণ্যই এখন তাদের ডোবাচ্ছে।

আপনি আরো পড়তে পারেন

রবি-এলজি বান্ডেল অফার, ক্রেডিট কার্ড ছাড়াই কিস্তিতে ফোন

বেশ কিছু চমক নিয়ে এলো নতুন আইফোন

ঈদ উপলক্ষে 'জিআর ফাইভ মিনি'র দাম কমালো হুয়াওয়ে

গ্যালাক্সি নোট সেভেন বিক্রি স্থগিত করেছে স্যামসাং

বিক্রিত গ্যালাক্সি নোট সেভেন ফেরত নেবে স্যামসাং

Add comment

Security code
Refresh