আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 00 মিনিট আগে

সম্প্রতি এক গবেষণায় বাজারে থাকা রোবটগুলো নিয়ে নিরাপত্তা ঝুঁকি লক্ষ করা গেছে। এই রোবটগুলো বড় ধরণের কোন ক্ষতির কারণ হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

robots at work

সাইবার নিরাপত্তা গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইওঅ্যাকটিভ সম্প্রতি সফটব্যাংক রোবোটিক্স, ইউবিটেক রোবোটিক্স, ইউনিভার্সাল রোবটস, রোবোটিস, অ্যাসরাটেক কর্পোরেশন আর রিথিংক রোবটিক্সসহ বিভিন্ন রোবট নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের রোবট অপারেটিং সিস্টেম ও অন্যান্য সফটওয়্যার নিয়ে পরীক্ষা চালায়।

আইওঅ্যাকটিভের জ্যেষ্ঠ নিরাপত্তা পরামর্শক লুকাস আপা বলেন, 'রোবটগুলোতে অনিরাপদ যোগাযোগ, সত্যতা যাচাইবিষয়ক ইস্যু, দুর্বল ক্রিপ্টোগ্রাফি, মেমোরি সমস্যা ও প্রাইভেসি সংক্রান্ত সমস্যা রয়েছে। এসব ত্রুটি বড় ধরণের ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।'

গবেষণাপত্রে জানানো হয়, বাসাবাড়ি বা কর্মক্ষেত্রে যেসব রোবট ব্যবহার করা হয় সেগুলোর নিরাপত্তা লঙ্ঘন করে অপরাধীরা নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ফেলতে পারে। এতে করে অপরাধীরা মানুষের উপর গুপ্তচরবৃত্তি চালাতে পারে বা ক্ষতি করতে রোবট ব্যবহার করতে পারে।

ব্রিটিশ দৈনিক ইন্ডিপেনডেন্টের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, রোবটগুলো হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পরিবারের লোকজন বা পোষা প্রাণীকে আঘাত বা নির্দেশনাহীন কর্মকাণ্ডও করতে পারে। হ্যাক করা রোবট রান্নাঘরের চুলায় আগুন ধরিয়ে দিতে পারে কিংবা পানীয়তে বিষ মিশিয়ে দিতে পারে। এমনকি ধারালো অস্ত্র নিয়ে অপ্রত্যাশিত কর্মকাণ্ডে উদ্যত হতে পারে।

গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি জানায়, ত্রুটি সংশোধনের জন্য তারা নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে সুনির্দিষ্ট তথ্য দিয়ে সহায়তা করতে প্রস্তুত।

Add comment

Security code
Refresh


advertisement