আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 49 মিনিট আগে

অ্যাপভিত্তিক গাড়ি, মোটরসাইকেল সেবা এখন বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। ঢাকায় চরম যানজট ও পাবলিক ট্রান্সপোর্টে যাতায়ত করার ধকল থেকে অনেকটাই মুক্তি দিয়েছে এসব সেবা। আর এবার বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো অ্যাপে মিলবে সাইকেল সেবা। পরীক্ষামূলকভাবে জাহাঙ্গিরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে এই সেবা চালু করা হচ্ছে।

cycle riding

জোবাইক নামের একটি স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠান এই উদ্যোগ নিয়েছেন। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হেলালউজ্জামান অয়ন বলেন, ‘জোবাইক সাইকেল শেয়ারিং সেবা প্রদান করবে। মূলত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ও চাকুরিজীবিদের লক্ষ্য করে এই সেবা চালু করা হচ্ছে। পরিবেশবন্ধব এই উদ্যোগের মাধ্যমে যাতায়তের ভোগান্তি কিছুটা কমে আসবে বলে আমরা আশা করছি।’

হেলালউজ্জামান বলেন, ‘অ্যাপভিত্তিক এই সেবায় বিভিন্ন জায়গায় সাইকেল রাখা থাকবে। সেখানে গিয়ে ‘কিউ আর’ কোড মোবাইলে স্ক্যান করলে সাইকেলের তালা খুলে যাবে। তারপর গ্রাহকরা যেখানে খুশি, সাইকেল নিয়ে ঘুরে বেড়াতে পারবেন। সাইকেলের প্রয়োজন শেষ হয়ে গেল নির্দিষ্ট স্ট্যান্ডে, রাস্তার ধারে অথবা কোন ফাঁকা স্থানে রেখে লক করে দিতে হবে। এরপর অ্যাকাউন্টে থাকা টাকা থেকে চার্জ কেটে নেয়া হবে। এতে প্রতি ৫ মিনিটের জন্য ভাড়া লাগবে ৩ টাকা।’

তিনি বলেন, ‘ধরুন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হল থেকে কেউ সমাজবিজ্ঞান অনুষদে যাবে। তিনি হল গেটে একটি সাইকেল দেখলেন এবং অ্যাপের মাধ্যমে সেটার লক খুলে নিলেন। এরপর সাইকেল চালিয়ে সমাজবিজ্ঞান অনুষদে পৌঁছে সাইকেলটি লক করে নিজের কাজে চলে গেলেন। এরপর এই লক করা সাইকেলটি অন্য কেউ দেখলেন এবং একইভাবে আনলক করে সাইকেল নিয়ে ক্যাম্পাসের অন্য কোন স্থানে চলে গেলেন।’

স্টার্টআপ এই প্রতিষ্ঠানটি আশা করছে, নতুন প্রজন্মের কাছে এই উদ্যোগ বেশ সাড়া ফেলবে। কোন নির্দিষ্ট গন্তব্যে যাওয়া ছাড়াও অনেকেই শরীরচর্চার মাধ্যম হিসেবেও সাইকেল ব্যবহার করবেন। আসছে বছরে দেশের শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে এই সেবা পাওয়া যাবে।

জানা গেছে, অত্যাধুনিক এই সাইকেলে থাকবে সোলার প্যানেল ও জিপিএস সিস্টেম। এর মাধ্যমে যে কোন সাইকেলের অবস্থান জানা যাবে। এই উদ্যোগ নিয়ে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করতে পারেন www.jo.bike ঠিকানায় ।

Add comment

Security code
Refresh