আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 43 মিনিট আগে

ইউটিউবের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা স্থগিত করেছে জার্মানির উচ্চ আদালত। ইউটিউব বেআইনি তথ্য সংরক্ষণ করছে এমন অভিযোগ তুলে ২০১৫ সালে এই মামলা দায়ের করে ইউরোপিয় ইউনিয়ন। বৃহস্পতিবার জার্মানির উচ্চ আদালত ফেডারেল কোর্ট অফ জাস্টিস (বিজিএইচ) ইউরোপিয় আইন ব্যাখ্যা করে এই স্থগিতাদেশ দেয়।

German Supeme Court ftr

অভিযোগে বলা হয়, ব্রিটিশ গায়ক সারাহ ব্রাইটম্যান ২০০৮ সালে মূল প্রযোজকের অনুমতি ছাড়া একটি গান ইউটিউবে আপলোড করেন। এই দায় শুধু ওই আপলোডকারীর নয়, গুগলের প্রতিষ্ঠান ইউটিউবেরও রয়েছে। 

জার্মান আদালতে স্থগিত হয়ে যাওয়ায় মামলাটি এখন লুক্সেমবার্গের ইউরোপিয়ান কোর্ট অফ জাস্টিস (ইসিজে)-এর হস্তগত হল। এজন্য আদালত অভিজ্ঞ আইনজীবীদের কাছে মতামত প্রার্থনা করেছে।

প্রাথমিকভাবে ইউরোপিয়ান কোর্ট জার্মান বিচারকের কাছে জানতে চেয়েছে, ইউরোপিয় আইনের ভিত্তিতে যদি কোন ব্যাক্তি মূল মালিকের অনুমতি ছাড়া কোন কনটেন্ট ইন্টারনেটে আপলোড দেয়, সেক্ষেত্রে যে প্ল্যাটফর্মে তা আপলোড দেয়া হয়েছে সেই প্ল্যাটফর্মও সমানভাবে অভিযুক্ত হবে কিনা।

ইউরোপিয়ান আদালত এখন মামলাটির একটি সাধারণ রায় দিবে। এতে ইন্টারনেটে মেধাস্বত্ত অধিকার প্রকাশ, আইনের লঙ্ঘন ও সংরক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ দিক-নির্দেশনা থাকবে।

Add comment

Security code
Refresh