আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 32 মিনিট আগে

সীমিত ওভারের ক্রিকেটে নিউজিল্যান্ড সফরে কিছুই পায়নি বাংলাদেশ। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি; উভয় সিরিজেই বরণ করতে হয়েছে লজ্জার হোয়াইটওয়াশ। সেই দগদগে ক্ষত নিয়েই এবার মুশফিকদের নামতে হচ্ছে ‘টেস্ট’ পরীক্ষায়।

mushfiq and his team set to face new zealand in test

বাংলাদেশ সময় বুধবার দিবাগত রাত ভোর চারটায় ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভ পার্কে মাঠে নামতেন মুশফিকরা। এর আগে কিউইদের বিপক্ষে কোনো সিরিজেই টেস্ট জিততে পারেনি বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ড সফরে এসে খেলা টেস্টগুলোতে বরণ করতে হয়েছে নির্মম সব পরাজয়।

advertisement

সেই পরাজয়ের বৃত্ত ভেঙে এবার মুশফিকরা নতুন কিছু করতে পারবেন কিনা, তা বলে দিবে সময়ই। তবে বৃত্ত ভাঙার অনুপ্রেরণা কিন্তু ঠিকই আছে মুশফিকদের। সর্বশেষ সিরিজে ইংল্যান্ডের মতো পরাশক্তির বিরুদ্ধে টেস্ট জিতেছে বাংলাদেশ। সেই জয়ের স্মৃতিটা কিউইদের বিপক্ষে সীমিত ওভারের সিরিজে কিছুটা ঝাপসা হলেও একেবারে নিশ্চয় ভুলে যাননি মুশফিকরা।

টেস্ট সিরিজ শুরুর আগের দিন মুশফিক জানিয়েছেন লড়াইয়ের সংকল্পের কথা। মুশফিকরা সেটা পারবেন, এমন আশা করছেন কেন উইলিয়ামসনও।

টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বড় আতঙ্কের নাম হলো— কিউই পেস। সবুজ উইকেটে দ্রুতগতির পেসাররা কতোটা ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারেন, সেটা নিশ্চয় ভালোই জানা আছে তামিম- ইমরুলদের। স্বাগতিক পেসারদের সামাল দিতে পারলেই কেবল টেস্ট সিরিজ থেকে মনে রাখার মতো কিছু পাবে বাংলাদেশ।

কিউইরা পেস দিয়ে বাংলাদেশকে আতঙ্কে রাখলেও বাংলাদেশের পেস আক্রমণ কিন্তু ততোটা শাণিত নয়। ম্যাচের আগের দিন যে ইঙ্গিত পাওয়া গেছে, তাতে মনে হয়েছে কামরুল ইসলাম রাব্বি, তাসকিন আহমেদ ও শুভাশীস রায়ই হতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের পেস ভরসা।

এই তিনজনের মধ্যে কেবল রাব্বির দুটি টেস্ট খেলার অভিজ্ঞতা আছে। তাসকিন ও শুভাশীসের অভিষেক হতে যাচ্ছে ওয়েলিংটনে। সব মিলিয়ে ‘টেস্ট’ পরীক্ষার মাধ্যমে মুশফিকরা সীমিত ওভারের সিরিজে নাস্তানাবুদ হওয়ার ‘প্রতিশোধ’ কতোটা নিতে পারবেন, তা দেখাতেই এখন মনোযোগ সমর্থকদের।

advertisement

Add comment

Security code
Refresh