আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 37 মিনিট আগে

অস্ট্রেলিয়া দলে প্রথম ডাক পেয়েছিলেন লেগব্রেক অলরাউন্ডার হিসেবে। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে সেই ভুমিকায় খেলে দল থেকে একাধিকবার বাদও পড়েছেন স্টিভেন স্মিথ। সেই ক্রিকেটারকে এখন টেস্টের বর্তমান সময়ের সেরা ব্যাটসম্যান বলা হচ্ছে। এতোটা কিভাবে বদলে গেলেন স্মিথ, এই ভাবনা আশ্চর্য করে অনেককে। চলতি অ্যাশেজে স্মিথ যেভাবে ব্যাটিং করছেন সেটাও আশ্চর্য হওয়ার মতো।

usman khawaja australia vs england

অ্যাশেজের প্রথম চার টেস্ট মিলিয়ে ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন একটি, সেঞ্চুরি দুটি। ৭৬ ও ৪৪ রানের দুটি ইনিংসও আছে। অসাধারণ ব্যাটিংয়ে আজ স্বরণীয় একটি কীর্তিও হয়ে গেল অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়কের। অ্যাশেজ সিরিজের সর্বশেষ টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ হওয়ার সময় ৪৪ রানে অপরাজিত স্মিথ। মাঠ ছাড়ার আগে টেস্ট ক্রিকেটে ছয় হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন অজি দলপতি। ১১১ ইনিংসে ছয় হাজার রান পূর্ণ করলেন স্মিথ। টেস্ট ইতিহাসে যা দ্বিতীয় দ্রুততম ছয় হাজার রান করার রেকর্ড। ৬৮ ইনিংসে ছয় হাজার রান করে সবার উপরে স্যার ডন ব্র্যাডম্যান।

তবে স্মিথের চেয়ে আজ ব্যাট হাতে বেশ আলো ছড়িয়েছেন পাকিস্তান বংশোদ্ভূত অস্ট্রেলিয়ার অপর ব্যাটসম্যান উসমান খাজা। আগের চার টেস্টে প্রত্যাশা মতো ব্যাটিং করতে না পারলেও আজ ৯১ রানে অপরাজিত থেকে দিনের খেলা শেষ করেছেন তিনি। যাতে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে ইংল্যান্ডের ৩৪৬ রানের জবাব দিতে নেমে ২ উইকেটে ১৯৩ রান তুলেছে অস্ট্রেলিয়া।

এর আগে সিডনি টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৩৪৬ রানে গুটিয়ে যায় ইংল্যান্ড। আজ দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু হওয়ার সময় ইংল্যান্ডের স্কোর ছিল ৫ উইকেটে ২৩৩। ৫৫ রানে অপরাজিত ছিলেন ডেভিড মালান। ইংল্যান্ডের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান আর বেশিদূর এগুতে পারেননি। দ্বিতীয় দিনে সকাল সকালই ৬২ রান করে ফিরে গেছেন।

এরপর ইংল্যান্ডের ইনিংসটা সাড়ে তিনশর কাছাকাছি গেছে অলরাউন্ডার মঈন আলী, তরুণ টম কুরান ও পেসার স্টুয়ার্ট ব্রডের অল্প অল্প প্রতিরোধে। মঈন ৩০ রান করেছেন, কুরান করেছেন ৩৯ রান আর ব্রডের ব্যাট থেকে এসেছে ৩১ রান।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৮০ রান খরচায় ৪ উইকেট তুলে নিয়েছেন পেসার প্যাট কামিন্স। দুটি করে উইকেট দখল করেছেন অপর দুই পেসার মিচেল স্টার্ক ও জস হ্যাজেলউড।

Add comment

Security code
Refresh