আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 26 মিনিট আগে

১৬৩ বা এর চেয়ে বেশি রান চেজ করে জয়ের রেকর্ড ছিলো মাত্র একটি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে জিততে হলে সেই রেকর্ডটা আরো একটু মজবুত করা ছাড়া উপায় ছিলো না বাংলাদেশের। অন্য উপায়ের পথে যেতেও হয়নি মাশরাফিদের। সাব্বির-মুশফিক ও সাকিবের ব্যাটে চড়ে বছরের প্রথম ম্যাচটি জিতে চার উইকেটে গেছে বাংলাদেশ।

bangladesh started 2016 with a win

১৬৩ রান তাড়া করতে নেমে ৩১ রানে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। সৌম্য সরকার আউট হন রান আউটের ফাঁদে পড়ে। তামিম ইকবালের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝির ফলে আউট হতে হয় তাকে। দলীয় ৫৮ রানে বিদায় নেন তামিম। একপাশ থেকে রান করে যান সাব্বির রহমান।

সাব্বির শেষ পর্যন্ত ৪৬ রান করেন। গ্রায়েম ক্রেমারকে ছয় মেরে আরো বড় কিছুর ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন সাব্বির। কিন্তু পরের বলেই ক্যাচ তুলে দেন তিনি। সাব্বিরের বিদায়ের আগে তামিমও ধরেন ড্রেসিংরুমের পথ। বাংলাদেশকে জেতানোর দায়িত্বটা উঠে মুশফিকের কাঁধে। সাকিবকে নিয়ে জুটি গড়েন তিনি। কিন্তু বেশিক্ষণ টিকেননি মুশফিক।

পরে সাকিব ও রিয়াদ ধরেন হাল। এই জুটিতেই জয়ের স্বপ্ন দেখছিলো বাংলাদেশ। কিন্তু লুক জঙ্গুয়েকে ছয় মারার পরের বলেই বোল্ড হয়ে ফিরেন রিয়াদ। তখনও তিন ওভারে জয়ের জন্য দরকার ২৭ রান। এই দরকারটা অভিষিক্ত সোহানকে সঙ্গে নিয়ে দারুণভাবে মিটিয়েছেন সাকিব আল হাসান। শেষ পর্যন্ত তিনি অপরাজিত থাকেন ১৩ বলে ২০ রান করে।

এর আগে হ্যামিল্টন মাসাকাদজার ৭৯ রানে ভর করে ১৬৩ রান করে জিম্বাবুয়ে। মাসাকাদজা ও সিবান্দা দলে ফিরেই বাংলাদেশকে দারুণ বিপদে ফেলেছিলেন। ওপেনিংয়ে তারা ১০০ রানের জুটি গড়েন। কিন্তু তাদের জুটির কীর্তি ম্লান হয়ে গেছে বাংলাদেশের দারুণ জয়ে।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন

আম্পায়ারের ভুলে ফের সেঞ্চুরি পেলেন রোহিত

আমিরের ফেরার দিনে পাকিস্তানের জয়

বাংলাদেশের অনেক চাওয়ার সিরিজ

Add comment

Security code
Refresh