আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 43 মিনিট আগে

বেশ কয়েকবার পেছানোর পর রোববার থেকে আমেরিকা ও দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ সামরিক মহড়া শুরু হয়েছে। এক মাস ব্যাপী এই মহড়ায় দক্ষিণ কোরিয়ার সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমান বাহিনীর প্রায় তিন লাখ সৈন্য অংশ নেবে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের মাত্র সাড়ে ১১ হাজার সেনা অংশ নেবে এই মহড়ায়।

joint military exercise

এই যৌথ মহড়া গত ফেব্রুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু শীতকালীন অলিম্পিকের কারণে তা পিছিয়ে দেয়া হয়।

সাধারণত দক্ষিণ কোরিয়ার সাথে যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ সামরিক মহড়াগুলোকে ঘিরে উত্তর কোরিয়া প্রবল আপত্তি জানাত। কিন্তু এবারের মহড়া নিয়ে খুব একটা উচ্চবাচ্য করেনি দেশটি। তবে মহড়া শুরুর আগে এই মহড়াকে আগ্রাসন হিসেবে অভিহিত করেছিলো পিয়ংইয়ং।

উল্লেখ্য, যে শীতকালীন অলিম্পিকের কারণে এই মহড়া পিছিয়ে দেয়া হয় সেই অলিম্পিক গেমসে উত্তর কোরিয়াও অংশ নেয়। তারপর থেকেই চির বৈরী এই দেশ দুটির মাঝে বিদ্যমান সম্পর্কের বরফ গলতে শুরু করেছে।

উল্লেখ্য, আগামী ২৭ এপ্রিল উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন এবং দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন একটি বৈঠকে মিলিত হবেন বলে আশা প্রকাশ করা হচ্ছে। এর গত দশ বছরের বেশি সময় ধরে দেশ দুটির নেতাদের মধ্যে কোনো বৈঠক হয়নি।

Add comment

Security code
Refresh