advertisement
আপনি দেখছেন

পরিচ্ছন্ন প্রশস্ত রাস্তা আর ফুটপাত ধরে লাগানো হয়েছে বাহারি গাছ, লতাপাতা। তার মাঝেই উঁকি দিচ্ছে ফাইকাস বনসাইয়ের সবুজ কচি পাতার সৌন্দর্য। আপনার চোখের সামনে হয়তো পশ্চিমা কোন দেশের ছবিই ভেসে উঠেছে। তবে এমনই পরিকল্পিতভাবে সেজেছে রাজধানীর বনানী ওভারপাস-এয়ারপোর্ট রোডের রাজপথ।

bonshai in airport road

তপ্ত দুপরে এই পথ ধরে চলাচলকারী পথচারীদের চোখে এই বনসাই বুলিয়ে দিচ্ছে শান্তির পরশ। এ বিষয়ে ঢাকা সড়ক সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. সবুজ উদ্দিন খান জানান, ফুটপাতের সৌন্দর্যবর্ধন করা হয়েছে মূলত বনানী ওভারপাস টু এয়ারপোর্ট বিউটিফিকেশন প্রকল্পের আওতায়। সৌন্দর্যবর্ধনের পাশাপাশি আধুনিক যাত্রী ছাউনি তৈরি, ফুটপাতের আলোক সজ্জা বৃদ্ধি এবং গাছ রোপন করা হয়েছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ভিনাইল ওয়ার্ল্ডের তত্ত্বাবধানে।

জানা গেছে, রাজধানীর রাজপথের এই অংশের ফুটপাতকে দৃষ্টি নন্দন করতে চীন থেকে সর্বমোট ১২০টি ফাইকাস বনসাই আনা হয়েছে। গাছগুলোর প্রতিটি দাম প্রায় দেড় থেকে ২ লাখ টাকা। গাছের দামের তুলনায় গাছগুলো আনতে খরচ বেশি হয়েছে। গাছগুলো আনতে খরচ হয়েছে প্রায় ৩ কোটি টাকা। বনাসাইয়ের মধ্যে এই প্রজাতির বনসাই সবচাইতে দৃষ্টি নন্দন।

প্রকৌশলী সবুজ বলেন, 'চীন থেকে ফ্রিজার কনটেইনারে গাছগুলো আনা হয়েছে বলেই এতো খরচ হয়েছে। গাছগুলোর বাংলাদেশের আবহাওয়া উপযোগী। তবে সৌন্দর্যবর্ধনের অংশ হিসেবে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করা হবে বাহারি পাতাবাহার। রঙিন পাতাবাহর এনে রাস্তাগুলোকে আরো সুন্দর করা হবে।'

প্রকল্পের আরেক কর্মকর্তা বলেন, 'বিদেশী মেহমানরা আসলে মূলত এই রোড দিয়েই বাংলাদেশে প্রবেশ করে। কাজেই বাংলাদেশ সম্পর্কে পজিটিভ ধারণা দিতেই সড়কটিকে সাজানো হচ্ছে। বৃক্ষ রোপনের পাশাপাশি ভাস্কর্য, যাত্রী ছাউনি এবং আলোকসজ্জা করা হবে।'