advertisement
আপনি পড়ছেন

দেশে ইতালীয় নাগরিক হত্যাকারী সন্দেহে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, সন্দেহভাজন এই চার আসামীকে গতকাল ঢাকার বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কিন্তু পুলিশের এ দাবীকে মিথ্যা বলে অভিহিত করেছেন সন্দেহভাজন আসামী হিসেবে আটক হওয়া রাসেল চৌধুরীর মা।

arrested rasel

রাসেলের মা আফরোজা আক্তার দাবী করেন, 'সন্দেহভাজন আসামী হিসেবে আমার ছেলেকে আটক করার হয়েছে পনেরো দিনেরও বেশি হবে। কিন্তু পুলিশ বলছে, তাঁকে গতকাল আটক করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, 'গত ১০ই অক্টোবর শনিবারে ডিবি পুলিশের পরিচয়ে একটি দল এসে সকাল ১১টায় বাসা থেকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় তাকে। আর পুলিশ দাবী করছে গুলশান থেকে তাকে আটক করা হয়েছে। বিদেশি হত্যার কোন সুষ্ঠু তদন্ত না করেই পুলিশ আমার ছেলেকে মিথ্যে আসামী বানানোর জন্য এমন দাবী করছে।'

যোগাযোগের জন্য ডিবি পুলিশ তাকে এটি ফোন নাম্বারও দিয়ে গিয়েছিলেন বলে তিনি জানান। সেই নাম্বারে কয়েকবার ফোন দিয়ে খোঁজ নিয়েছেন তিনি। তারা বলছে ,আপনার ছেলে ভাল আছে। আমরা তার ব্যপারে তদন্ত করছি।

অথচ পুলিশ কমিশনার আসাদুজ্জামান জানিয়েছেন, 'ইতালীয় নাগরিক হত্যা সন্দেহে গতকাল রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে চার জনকে আটক করা হয়েছে। এরা ভাড়াটে খুনি হিসেবে খুনকার্য চালিয়ে থাকে। জনৈক বড় ভাইয়ের নির্দেশেই এই হত্যাকাণ্ড তারা চালিয়েছে বলে আমরা প্রমাণ পেয়েছি।'

পুলিশের এই প্রধান আরো জানান 'সিসিটিভির ধারণকৃত ফুটেজ থেকে এই চারজনের মধ্যেই একজন হত্যাকারী আছে বলে আমরা নিশ্চিত হয়েছি।'

 

আপনি আরো পড়তে পারেন 

ঢাকা বিমানবন্দরে হঠাৎ বাড়তি সতর্কতা

মৃত ভোটারের তালিকা করছে ইসি

আইএস-এর বিবৃতির অন্য উদ্দেশ্য থাকতে পারে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী