advertisement
আপনি দেখছেন

রাজধানীর শ্যামপুরে স্যুয়ারেজ লাইনে পড়ে যাওয়া শিশু নীরবের লাশ বুড়িগঙ্গায় পাওয়া গেছে। তাঁর বয়স ছিলো পাঁচ বছর। ম্যানহোলে পড়ে যাওয়ার প্রায় সাড়ে চার ঘণ্টা পর শিশুটির লাশ পাওয়া গেলো।

children in manhole

রাত আনুমানিক সাড়ে আটটার দিকে শিশু নীরবের লাশ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ মহাসড়কের পাশে বুড়িগঙ্গার তীর থেকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে সেনাকল্যাণ ঘাটে তাঁর লাশ পাওয়া যায়।

ফায়ার ব্রিগেডের উপ-পরিচালক মোজাম্মেল হক জানান, নীরবের লাশ বুড়িগঙ্গায় বসানো একটি জালে আটকে ছিলো। ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি আলাউদ্দিন শিশুটির সন্ধান পান বলে তিনি জানান।

লাশ উদ্ধারের পর নীরবকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

মঙ্গলবার বিকাল চারটার দিকে বন্ধুদের সঙ্গে খেলার সময় নীরব ড্রেনে পড়ে যায়। ড্রেনে পড়ার পর কারখানার বর্জ্রের স্রোতে নীরব বুড়িগঙ্গার দিকে চলে যায়। এই সময়ের মধ্যেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এর আগে গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর রাজধানীর শাহজাহানপুরে একটি পরিত্যক্ত পাইপে পড়ে গিয়ে জিহাদ নামে একটি শিশু মারা যায়। ফায়ার সার্ভিস ও কয়েকজন তরুণের চেষ্টায় জিহাদের লাশ পাইপ থেকে উদ্ধার করা হয়েছিলো।