advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 15 মিনিট আগে

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে দুই বন্দুকধারীর হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪০ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৪৮ জনের মতো। শুক্রবার স্থানীয় সময় দুপুর দেড়টায় জুমার নামাজের সময় হওয়া এ হামলায় দুই বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন অস্ট্রেলিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার এম সুফিউর রহমান।

new zealand mosque attack 2

দেশটির গণমাধ্যম জানিয়েছে, ডিনস এভে অবস্থিত মসজিদ আল নুর ও লিনউড এভের লিনউড মসজিদে দুই বন্দুকধারী একযোগে হামলা চালায়। মসজিদের ভেতরে জুমার নামাজে সেজদারত মুসল্লিদের ওপর গুলি ছোঁড়া হয়। এ ঘটনায় ৪০ জনের মৃত্যু এবং ৪৮ জন আহত হয়েছে।

এটিকে সন্ত্রাসী হামলা আখ্যা দিয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন বলেছেন, ‘এই ঘটনা নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে সবচেয়ে কালো অধ্যায়। তবে আমরা চরম ও উগ্রপন্থীদের কাছে মাথা নত করব না।’

ব্রেনটন ট্যারেন্ট নামে ২৮ বছর বয়সী এক অস্ট্রেলিয়ান-বংশোদ্ভূত শ্বেতাঙ্গ যুবক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লাইভে এসে মসজিদে হামলা চালায়। ১৭ মিনিট ধরে হামলার লাইভ ভিডিও প্রচারিত হয়।

ঘটনার পর ক্রাইস্টচার্চের মেয়র লিয়ানে ডালজিয়েল স্থানীয়দের শহরের কেন্দ্রস্থল এড়িয়ে চলার আহ্বান জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে বাসিন্দাদের ঘর থেকে আপাতত বের না হবার জন্য সতর্ক করেছেন।

এদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি টেস্ট সিরিজের তৃতীয় ম্যাচ খেলতে দেশটি সফরে রয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়রা। ভয়াবহ এ হামলার সময় তারা ক্রাইস্টচার্চেই অবস্থান করছিলেন। তবে বাংলাদেশ দল নিরাপদে আছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ দলের ওপেনার তামিম ইকবাল।

তিনি এক টুইটে জানিয়েছেন, ‘পুরো দল বন্দুকধারীদের হাত থেকে বেঁচে গেছে। ভয়াবহ অভিজ্ঞতা। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

sheikh mujib 2020