advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 15 মিনিট আগে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়ে বলেছেন, 'সাধারণ শিক্ষার্থী ও নির্বাচিত স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তারা চাইলে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবো।' আগামীকাল শনিবার সন্ধ্যায় ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী নেতাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার কথা রয়েছে।

nurul haque vp

শুক্রবার দুপুরে পুনঃনির্বাচনের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অনশনে থাকা শিক্ষার্থীদেরে দেখতে আসেন নুর। এসময় সাংবাদিকরা তার কাছে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি এসব কথা বলেন। কোটা সংস্কার আন্দোলনের এ নেতা বলেন, 'নির্বাচনে অনিয়ম, ব্যালট পেপারে সিল মারা এবং কারচুপির পরেও প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনে বিজয়ীদের চায়ের আমন্ত্রন জানিয়েছেন। এখন সেটা সকলে মিলে আলাপ করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।'

তিনি বলেন, 'আমি একা বললে হবে না; মেয়েদের হলে স্বতন্ত্রভাবে বেশ কয়েকজন নির্বাচিত হয়েছেন। তাদের সঙ্গে আলাপ করেই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এছাড়া স্বতন্ত্র প্যানেল রয়েছে, তাদের সঙ্গেও আলোচনা করা হবে।'

শিক্ষার্থীদের নানান রকম সংকট রয়েছে উল্লেখ করে ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুর বলেছেন, 'প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ ব্যক্তি; বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিয়েও তার দায়িত্ব রয়েছে। ইতিবাচকভাবে বললে আমি যাওয়ার পক্ষে। তবে আমি আমার আন্দোলনকারী ভাই-বোন এবং যারা নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন তাদের সঙ্গে আলাপ করে সিদ্ধান্ত নিবো। তারা যদি রাজি না হয় তাহলে যেতে পারবো না। আশাকরি তারা রাজি হবেন।'

নুর বলেন, 'আমি বিভিন্ন সময় ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের হাতে রক্তাক্ত হয়েছি। তখন এই শিক্ষার্থী ভাই-বোনেরা আমার পাশে দাড়িয়েছে। সুতরাং তারা না চাইলে দায়িত্ব গ্রহণ করা কিংবা দেখা করতে যাওয়ার প্রশ্নই উঠে না।’

ভিপি নুর বলেন, 'আমার ব্যাক্তি ইমেজ নষ্ট করতে এবং সাধারণ শিক্ষার্থীদের বিভ্রান্তি করতে নানান রকম গুজব ছড়ানো হচ্ছে। তবে স্পষ্ট করে বলতে চাই, আমি আগে ছাত্রলীগের রাজনীতি করতাম। তবে এখন কোনোভাবেই ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে আমার সম্পৃক্ততা নেই। আমি বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষন পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক। এ পরিষদের ব্যানার থেকেইে আমি ডাকসু নির্বাচন করেছি।'

sheikh mujib 2020