আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 45 মিনিট আগে

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে সন্ত্রাসীদের ব্রাশ ফায়ারে নির্বাচনী কর্মকর্তা ও আনসার সদস্যসহ সাতজনকে হত্যা ও বিলাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুরেশ কান্তি তঞ্চঙ্গ্যাকে গুলি করে হত্যার প্রতিবাদে বুধবার খাগড়াছড়িতে সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দিয়েছে পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদ।

khagrachari strike

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সংগঠনটির খাগড়াছড়ি জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো. রবিউল হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইছড়িতে সোমবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শেষে নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে ফেরার পথে কর্মকর্তাদের ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের বহনকারী গাড়িতে গুলি করে সন্ত্রাসীরা। এতে সাতজন নিহত হন।

বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, দ্রুত যৌথ অভিযান চালিয়ে সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারসহ অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের জন্য ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটামও দেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, হরতালে কোনো ধরনের বাধা দিলে তিন পার্বত্য জেলায় লাগাতার হরতালসহ কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘পাহাড়ে একের পর এক সন্ত্রাসীদের হত্যাকাণ্ডে বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়েছে পার্বত্য জনপদ। রাষ্ট্রবিরোধী অনিবন্ধিত আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠন ইউপিডিএফ, জেএসএস এর মতো সন্ত্রাসী গ্রুপগুলো সব সময় পার্বত্য এলাকাকে নৈরাজ্য পূর্ণ এলাকায় পরিনত করে তুলেছে। তাই অস্ত্রধারী এসব সংগঠনগুলোকে নিষিদ্ধ করে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে অভিযানসহ পাহাড়ী সন্ত্রাসীদের মদতদাতা নারী সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমাকে সংসদ সদস্য পদ থেকে অপসারণ করতে হবে।’