advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 15 মিনিট আগে

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী বছর দেশে ফুটবল-ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট হতে পারে বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল। এছাড়া ক্রিকেটে এশিয়া বনাম বিশ্ব একাদশের মধ্যে একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ আয়োজনের কথাও ভাবা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

cabinet meeting 1

২০২০ সালকে ‘মুজিব বর্ষ’ হিসেবে উদযাপনের ঘোষণা দেয়া হয়েছে আগেই। ব্যাপক আয়োজনের মধ্য দিয়ে সালটি পালন করা হবে। স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতির জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে দুটি কমিটি গঠন করেছে সরকার।

আজই প্রথম জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় কমিটি ও উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির প্রথম যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় বছর জুড়ে নানা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এর মধ্যে ফুটবল-ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের কথাও ভাবা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, আমরা আকর্ষণীয় কিছু করবো ক্রীড়াঙ্গনে। ফেডারেশনগুলো স্থানীয়ভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করবে; কিন্তু আন্তর্জাতিক আয়োজনও থাকবে। এর মধ্যে প্রাধান্য পাবে ২০২০ সালে বড় দুই খেলা ফুটবল ও ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক আয়োজন।

তবে আইসিসির শিডিউলের কারণে বিভিন্ন দেশের ব্যস্ততা থাকলে ক্রিকেটে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট করা কঠিন হতে পারে। তাই আমরা ক্রিকেট বোর্ডকে এশিয়া বনাম বিশ্ব একাদশের মধ্যে একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ আয়োজনের প্রস্তাব দেবো, বলেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী।

ফুটবলের আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টটা সরকার বড় আকারে করতে চাচ্ছে জানিয়ে জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, আমরা সব মহাদেশের একটি করে দেশের অংশগ্রহণেই একটি বড় মাপের আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজনের কথা আলোচনা করেছি। সরকার থেকে সেভাবেই নির্দেশনা দেয়া হবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনকে।

প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের যৌথ এ সভায় কমিটির সদস্য, জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক এবং সদ্য নির্বাচিত সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজাও উপস্থিত ছিলেন।

sheikh mujib 2020