advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 57 মিনিট আগে

মেয়েদের সাজ-পোশাক, মেকআপসহ বিভিন্ন বিষয়ে সারাবছরই চলে ঘষামাজা। তবে ছেলেদের যত ভাবনা চুলকে ঘিরে। নিজেকে আকর্ষণীয় আর স্টাইলিশ করে তুলতে সময়োপযোগী হেয়ার স্টাইলের বিকল্প নেই। তবে ছেলেদের এই হেয়ার স্টাইলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে। শুধু তাই নয় স্টাইল করে চুল কাটলে গুণতে হবে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা।

hairstyles

টাঙ্গাইল ভূঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশিদুল ইসলামের নির্দেশে নাপিতদের সমিতি থেকে (শীল সমিতি) ছেলেদের হেয়ার স্টাইলে এমন নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করলে অভিযুক্ত শীল সদস্যকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করারও ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, সেখানে শিক্ষার্থী ও উঠতি বয়সের যুবকসহ যে কারো স্টাইল করে চুল ছাঁটাসহ দাড়ি ও গোঁফ রঙ না করার বিষয়ে শীল সদস্যদের সতর্ক করেছেন ভূঞাপুর থানার ওসি। পরে ওসির সঙ্গে একমত হয়ে উপজেলা শীল সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত একটি নোটিসের মাধ্যমে সব সদস্যকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

ভূঞাপুর উপজেলা শীল সমিতির উপদেষ্টা অখিল চন্দ্র শীল জানান, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নির্দেশে স্টাইল করে চুল, দাড়ি ও গোঁফ কাটা বন্ধ রয়েছে। শীল সমিতির সভাপতি শেখর চন্দ্র শীল বলেন, 'ছাত্র ও উঠতি বয়সের যুবকসহ সবার স্টাইল করে চুল, দাড়ি ও গোঁফ কাটা নিষিদ্ধ। কোনো দোকানে হেয়ার স্টাইলের ক্যাটালগ না রাখারও নির্দেশনা রয়েছে। কোন শীল এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করলে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা গুণতে হবে।'

এমন নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে ভূঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাশিদুল ইসলাম বলেন, 'স্টাইলের নামে বিশ্রিভাবে চুল ছাঁটার বিষয়ে অভিভাবকরা অনেক সময় আমার কাছে মৌখিকভাবে অভিযোগ করেছেন। ছাত্ররা কেন বখাটেদের মতো ঘুরবে? এতে সমাজের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়। পরে এলাকার বিভিন্ন অভিভাবক, শিক্ষক ও উপজেলা শীল সমিতির সভাপতিসহ সমিতির সকলের সঙ্গে কথা বলে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।'

sheikh mujib 2020