advertisement
আপনি দেখছেন

যারা বাংলা ভাষাকে সঠিক ও শুদ্ধভাবে প্রয়োগ করবে না তাদের কোন ছাড় দেয়া হবেনা বলে ঘোষণা দিয়েছেন ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি ফেসবুক-গুগলে বাংলাভাষার সঠিক ব্যবহার করার নির্দেশ দিয়েছেন। এ বিষয়ে সতর্ক না হলে দেশে ফেসবুক নিষিদ্ধ হতে পারে বলে ফেসবুকের সিইও মার্ক জাকারবার্গকে জানিয়েছেন মন্ত্রী।

mostofa jabbar new

চলমান বেসিস সফটএক্সপো-২০১৯ এ ‘বাংলা যান্ত্রিক অনুবাদক, তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলা ভাষার ব্যবহার’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মোস্তফা জব্বার। আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) বেসিস সফটএক্সপো-২০১৯ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন গবেষণা ও উন্নয়নের মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলা ভাষা সমৃদ্ধকরণ প্রকল্পের পরিচালক ড. জিয়া উদ্দিন আহমেদ, বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির এবং বিসিসি পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার এনামুল কবিরসহ আরো অনেকে।

মন্ত্রী বলেন, 'গুগল-ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাংলা প্রয়োগের ক্ষেত্রে ভাষা বিকৃত হচ্ছে।' এ সময় তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, 'যারা বাংলা ভাষাকে সঠিকভাবে প্রয়োগ করবে না তাদের সরকার কোন ধরনের ছাড় দেবে না।'

ফেসবুক বন্ধের বিষয়টি উল্লেখ করে মোস্তফা জব্বার বলেন, 'সম্প্রতি স্পেনে ফেসবুকের সিইও মার্ক জাকারবার্গের সঙ্গে দেখা হয়েছিল। তাকে বলেছি, 'বাংলা ভাষাকে যদি সঠিকভাবে প্রয়োগ করা না হয়, তাহলে কখন বাংলাদেশে ফেসবুক নিষিদ্ধ হয়ে যাবে সেটা গ্যারান্টি আমি দিতে পারছি না। এমন কথা মাইক্রোসফটকেও বলা হয়েছে। কাজেই বাংলাকে বাংলা ভাষার নিয়মেই ব্যবহার করতে হবে।'

তিনি এসময় বলেন, 'পৃথিবীতে বিভিন্ন কারণে বহু দেশ তার মাতৃভাষাকে হারিয়ে ফেলেছে। মাতৃভাষায় ব্যবহার করা বর্ণমালা হারিয়ে ফেলেছে। উদাহরণ হিসেবে উর্দু ভাষার কথা বলতে পারি। তারা তার নিজস্ব বর্ণমালা হারিয়েছে। অন্যদিকে মালয়েশিয়া তাদের ভাষায় ইংরেজি বর্ণমালার ব্যবহার করছে।'

মোস্তফা জব্বার উল্লেখ করেন, 'আগে কম্পিউটার ছিল শুধুই ইংরেজি ভাষার দখলে। বর্তমানে ইন্টারনেটে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হচ্ছে চাইনিজ ভাষা। বাংলাদেশের ৯ কোটি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। পুরো বিশ্বে সবমিলিয়ে ৩৫ কোটি বাংলা ভাষাভাষী। বাংলা পৃথিবীর চতুর্থ বৃহত্তম মাতৃভাষা। কাজেই এই ভাষার ক্ষতি হোক এটা আমরা চাই না।'