advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 20 মিনিট আগে

জনগণের ভোট ছাড়াই ‘ক্ষমতা দখল’ করার মাধ্যমে সরকার মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের সাথে বেইমানি করেছে বলে বুধবার অভিযোগ করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেন, ‘দেশের মানুষের ভোট দেয়ার অধিকার চর্চা করার কোনো সুযোগ নেই। অশুভ শক্তি সত্যকে মিথ্যা বানিয়ে দেয়ার জন্য সক্রিয় রয়েছে।'

dr kamal after election photo

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জাতীয় প্রেস ক্লাবে গণফোরাম আয়োজিত আলোচনা সভায় ড. কামাল বলেন, কাল্পনিক বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে ১৬ কোটি মানুষের দেশ পরিচালনা দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণ। ‘১৯৭১ সালে লাখো মানুষের জীবনের বিনিময়ে দেশ মুক্ত হয়েছিল। কিন্তু তারা ক্ষমতা দখল ও স্বাধীন দেশের মানুষের নাগরিক অধিকার হরণ করে শুধুমাত্র আমাদের সাথে প্রতারণা করেনি, তারা শহীদদের সাথেও প্রতারণা করেছে। শহীদদের সাথে এমন বেইমানি নজিরবিহীন,’ যোগ করেন তিনি।

গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল বলেন, কোনো ব্যক্তিকে ক্ষমতায় বসানোর জন্য মানুষ তাদের জীবন দেয়নি। ‘তারা জীবন দিয়েছিল মানুষকে দেশের মালিক বানানোর জন্য।’ বর্তমান সংসদ সদস্যরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত না হওয়ায় তারা কীভাবে জনগণের জন্য ভূমিকা রাখবে তা নিয়ে প্রশ্ন করেন তিনি।

তিনি বলেন, তারা দেশে কোনো সহিংসতা চান না, কারণ এতে শুধু জীবনহানি, অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি এবং অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও সরকার ব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঐক্যফ্রন্ট আহ্বায়ক সরকারকে চলতি বছরের মধ্যে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনের তাগিদ দেন। সেই সাথে তিনি বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচনের পর নির্বাচিত প্রতিনিধিদের হাতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতা হস্তান্তরের আহ্বান জানান।

sheikh mujib 2020