আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 01 মিনিট আগে

বনানীর এফআর টাওয়ারে লাগা আগুন নেভাতে বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টার অভিযানে যোগ দিয়েছে। ইতোমধ্যেই টাওয়ারের ওপরে হেলিকপ্টার থেকে পানি ছিটাতে দেখা গেছে। এছাড়া মাটিতে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের পাশাপাশি পুলিশ ও র‍্যাব কর্মীদের কাজ করছেন।

banani fire fr tower

বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটের দিকে এই আগুন লাগে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ১৭টি ইউনিট বর্তমানে কাজ করছে বলে জানা গেছে। ভবনটির ভেতরে অনেক মানুষ আটকা পড়ে আছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষ্যদর্শীরা।

বনানীর এফআর টাওয়ারে লাগা আগুন থেকে বাঁচতে ভবনের উপরের কয়েকটি তলা থেকে কয়েকজন লাফিয়ে পড়েছেন। নিচে তাদেরকে নিরাপদভাবে গ্রহণ করার কোনো ব্যবস্থা না থাকলেও ধোঁয়া ও আগুন আতঙ্কে তারা এই কাজটি করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এনায়েত হোসেন জানান, এফআর টাওয়ারের ৯ তলা থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে আগুন লাগার কারণ তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

তিনি বলেন, আগুনের সংবাদ পেয়ে প্রথমে ৫ টি ইউনিট পাঠানো হয়েছিল। দেড়টা পর্যন্ত মোট ১০টি ইউনিট সেখানে গেছে। আগুন এখনও নিয়ন্ত্রণে আসেনি।

ভবনটিতে দ্যা ওয়েভ গ্রুপ, হেরিটেজ এয়ার এক্সপ্রেস, আমরা টেকনোলজিস লিমিটেড ছাড়াও কয়েকটি গার্মেন্ট বায়িং হাউজ এবং ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারের অর্ধশতাধিক অফিস রয়েছে।