advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 12 মিনিট আগে

বনানীর এফআর টাওয়ারে লাগা আগুন এখনও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। মাঝে একবার আগুন নিভে যাওয়ার পর কিছুক্ষণ আগে আবারও ভবনের নয়-দশ তলায় আগুনের শিখার দেখা মিলেছে। এছাড়া পুরো ভবন জুড়েই কালো ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়েছে।

dead list of banani fire

এখন পর্যন্ত এই অগ্নিকাণ্ডে সাত জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে এই সংখ্যা আরও বাড়বে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা।

নিহতদের মধ্যে একজন শ্রীলঙ্কান নাগরিক আছেন বলে জানা গেছে। তার নাম নীরস। তিনি ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে মারা যান।

এছাড়া আবদুল্লাহ নামে একজন ঢাকা মেডিকেলে, গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার বালুগ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে পারভেজ সাজ্জাদ (৪৭) বনানী ক্লিনিকে, দিনাজপুর জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার আবুল কাশেমের ছেলে মামুন ইউনাইটেড হাসপাতালে, আমিনা ইয়াসমিন (৪০) অ্যাপোলো হাসপাতালে, মাকসুদুর (৬৬) ও মনির (৫০) মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটের দিকে এই আগুন লাগে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের পাশাপাশি পুলিশ, র‍্যাব, সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, বিমানবাহিনী ছাড়াও অন্যান্য বেসরকারি এজেন্সিগুলো যোগ দিয়েছে।

অগ্নিকাণ্ড নিয়ন্ত্রণে ভবনের ভেতরে প্রবেশ করতে সক্ষম হয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। তারা ভবনটির ভেতর থেকে আগুন নিয়ন্ত্রণে চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

sheikh mujib 2020