advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 20 মিনিট আগে

বনানীর এফআর টাওয়ারের জমির মালিক প্রকৌশলী এসএমএইচআই ফারুক (৬৫) ও ভবনের বর্ধিত অংশের মালিক বিএনপি নেতা তাসভির উল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর আজ দুপুরে আদালতে তোলা হচ্ছে। অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে বলে জানিয়েছে ডিবি।

3 owners of the fr building

এর আগে শনিবার রাতে ফারুক ও তাসভিরকে গ্রেপ্তার করে ডিবি পুলিশ। এ মামলার তদন্তভার রাতেই ডিবিকে দেয়া হয় এবং ডিবির ইন্সপেক্টর জালাল মামলার তদন্ত কর্মকর্তার দায়িত্ব পান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডিবি উত্তর বিভাগের এডিসি গোলাম সাকলাইন সিথিল।

তিনি বলেন, ‘গ্রেপ্তার আসামিদের প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে মামলার কাগজপত্রও প্রস্তুত করা হচ্ছে। এ মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের কাছে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হবে।’

গ্রেপ্তারকৃত দুজনের মধ্যে তাসভিরকে শনিবার রাত পৌনে ১১টায় বারিধারার নিজ বাসা থেকে এবং রাত ১টায় বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে ফারুককে গ্রেপ্তার করা হয়।

এদিকে এ মামলার আরেক এজাহারধারী আসামি হচ্ছেন ওই জমিতে ভবন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান রূপায়ন গ্রুপের চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী খান মুকুল। তিনি গোপনে দেশ ছেড়েছেন বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে ডিবি পুলিশ।

এ বিষয়ে এডিসি গোলাম সাকলাইন সিথিল বলেন, ‘তাকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তবে তিনি দেশ ছেড়ে পালিয়ে গেছেন বলে জানতে পেরেছি।’

গত বৃহস্পতিবার বনানীর কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউয়ের পাশের ১৭ নম্বর সড়কে ফারুক রূপায়ন (এফআর) টাওয়ারের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৬ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া আরো ৭৩ জন আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় শনিবার অবহেলাজনিত মৃত্যু সংঘটনের অভিযোগে বনানী থানায় একটি মামলা করা হয়। মামলার এজহারে তাসভির উল ইসলাম, প্রকৌশলী এসএমএইচআই ফারুক (৬৫) ও লিয়াকত আলী খান মুকুলর নাম রয়েছে।

sheikh mujib 2020