advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 32 মিনিট আগে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) স্যার সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে ডাসকসুর ভিপি নুরুল হক নুর এবং শামসুন্নাহার হলের ভিপি শেখ তাসনিম আফরোজ ইমিসহ অন্যদের ওপর হামলার ঘটনা তদন্ত করে করে র‌্যবস্থা নেয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান। আজ বুধবার সকালে হামলার শিকার ভিপি নুরসহ অন্যদের তিনি এ আশ্বাস দেন।

vc

ঢাবি ভিসি বলেন, ‘ডাকসুর ভিপি নুরসহ তার সঙ্গে থাকা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে।তাদেরকে বলেছি, এখন কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ আছে। যেকোন দাবি দাওয়া আদায়ে একটি দায়িত্বশীল জায়গা তৈরি হয়েছে। আন্দোলনকারীদের আমি বুঝিয়েছি, এখন আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করা সম্ভব। আমাদের এখন দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে।’

দীর্ঘদিন পর ডাকসুর নির্বাচন হওয়াতে অনেকে তাদের দায়িত্ব সম্পর্কে জানেন না। হল সংসদের নেতারাও বুঝেন না, তাদের কি করণীয়, কীভাবে করতে হবে উল্লেখ করে আখতারুজ্জামান বলেন, ভাবছি একটি ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামের আয়োজন করবো। যারা ডাকসুর সাবেক তাদের নিয়ে এসে একটু প্রোগ্রাম করবো।

ঢাবি ভিসি আরো বলেন, ‘গতকালকের ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে হলের প্রভোস্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। যারা দোষী তাদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘এই বিশ্ববিদ্যালয়ে কেউ যেনো অনাকাঙ্খিত ঘটনা না ঘটাতে পারে সেজন্য সহযোগিতা কামনা করছি।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক সাদেকা হালিমসহ অন্যরা।

প্রসঙ্গত, সোমবার রাতে এসএম হলের উর্দু বিভাগের শিক্ষার্থী ফরিদ হাসানের ওপর হামলা চালায় ক্ষমতাসীন ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দিতে এসএম হলে যান ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আকতার হোসেন, শামসুন্নাহার হলের ভিপি শেখ তাসনীম আফরোজ ইমি, ঢাবি ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি উম্মে হাবিবা বেনজির, অরণি সেমন্তি খানসহ বেশ কয়েকজন।

sheikh mujib 2020