advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশের কাছের বন্ধু হিসেবে যুক্তরাজ্য স্বচ্ছ, শক্তিশালী ও জবাবদিহিমূলক গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান থাকা এক প্রত্যয়ী বাংলাদেশ দেখতে চায় বলে জানিয়েছেন ঢাকা সফররত ব্রিটিশ প্রতিমন্ত্রী মার্ক ফিল্ড। এছাড়া এই উদীয়মান গণতান্ত্রিক ভূমি অবাধ ও স্পন্দনশীল গণমাধ্যমের দ্বারা জবাবদিহির আওতায় থাকবে, এটাও দেখতে যুক্তরাজ্য চায় বলে জানান তিনি।

marc field uk

রবিবার রাজধানীর এক হোটেলে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউট আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘আমরা প্রাণবন্ত বিতর্ক, উদ্দীপনাময় সুশীল সমাজ ও প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচন দেখতে চাই।’

‘বাংলাদেশের দ্বিতীয় অর্ধশতকের জন্য তা হবে এক চমৎকার রূপকল্প এবং সেই সাথে এটি হবে দেশটির অবিসংবাদিত সম্ভাবনা বাস্তবায়নের সবচেয়ে ভালো উপায়,’ উল্লেখ করে ব্রিটিশ প্রতিমন্ত্রী জানান, যেকোনো উপায়ে এ সম্ভাবনা অর্জনে বাংলাদেশকে সাহায্য করতে যুক্তরাজ্য প্রস্তুত।

দুই দেশের মধ্যকার ইতিহাস ও আত্মীয়তার বন্ধন তাদের সম্পর্ককে বিশেষ করে শক্তিশালী ও গভীর করেছে বলে মন্তব্য করেন মার্ক ফিল্ড।

‘বাংলাদেশ গত অর্ধশতকে যে বিশাল অগ্রগতি অর্জন করেছে তাকে দীর্ঘদিনের বন্ধু হিসেবে যুক্তরাজ্য স্বাগত জানায় এবং আগামীতে দেশটির আরও অনেক কিছু অর্জনের যে বড় সম্ভাবনা রয়েছে তা উপলব্ধি করে,’ যোগ করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমন ও এইচটি ইমাম অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ কার্যালয়ের এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের প্রতিমন্ত্রী মার্ক ফিল্ড তৃতীয়বারের মতো বাংলাদেশ সফর করছেন এবং সোমবার তিনি লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন। ইউএনবি।