advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 15 মিনিট আগে

জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা টেলি সামাদের দাফন রবিবার বিকালে মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলার নয়াগাঁওয়ে পারিবারিক কবরস্থানে সম্পন্ন হয়েছে। বাদ আসর ড. ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে টেলি সামাদের ৫ম নামাজে জানাজা শেষে তাকে বাবা-মার কবরের পাশে দাফন করা হয়।

tele samad

রবিবার বেলা ৩টার দিকে টেলি সামাদের লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স তার জন্মস্থান নয়াগাঁওয়ে পৌঁছে। সেখানে লাশ পৌঁছার পর এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। সকলে শেষবারের মতো প্রিয় অভিনেতাকে দেখতে ভিড় জমায়।

এর আগে বেলা সাড়ে ১২টায় টেলি সামাদের প্রিয় কর্মস্থল এফডিসি প্রাঙ্গণে তার ৪র্থ নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার দুপুর দেড়টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে মারা যান টেলি সামাদ।

শনিবার বাদ মাগরিব ঢাকার ধানমন্ডির তাকওয়া মসজিদে আব্দুস সামাদের (টেলি সামাদ) প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে বাদ এশা তার ঢাকার বাসভবন ইন্দিরা রোডের পশ্চিম রাজাবাজার জামে মসজিদে দ্বিতীয় নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।রাত সাড়ে ১০টার দিকে মগবাজার তৃতীয় নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর লাশ নিয়ে আসা হয় তার ইন্দিরা রোডের বাসভবনে। সেখান থেকে রবিবার সকালে তার লাশ নেয়া হয় এফডিসিতে।

সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলে বেড়ে ওঠা টেলি সামাদ বড় ভাই বিখ্যাত চারুশিল্পী আব্দুল হাইয়ের পদাঙ্ক অনুসরণ করে পড়াশোনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলায়। সংগীতেও রয়েছে এই গুণী অভিনেতার পারদর্শিতা। ‘মনা পাগলা’ ছবির সংগীত পরিচালনা করেছেন তিনি।

১৯৭৩ সালে ‘কার বউ’ দিয়ে তার চলচ্চিত্রে পা রাখেন এ অভিনেতা। চার দশকে ৬০০ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন টেলি সামাদ।

sheikh mujib 2020