advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 12 মিনিট আগে

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভি‌সির পদত্যাগের দাবিতে বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে শিক্ষার্থীরা। এর আগে দুপুরে শিক্ষার্থীদের দেয়া ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম শেষ হয়। মঙ্গলবার বেলা ১টা থে‌কে দুপুর ২টা পর্যন্ত এই কর্মসূচী পালন করে তারা। এ সময় সড়কে অগ্নিসংযোগ করেন শিক্ষার্থীরা। এতে করে সড়কের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সড়কের দুই পাশে ব্যাপক যানজটের সৃ‌ষ্টি হয়।

bu protest

এর আগে সোমবার উপাচার্যের পদত্যাগপত্র বা বাধ্যতামূলক ছুটির লিখিত চেয়ে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দেন শিক্ষার্থীরা। আজ মঙ্গলবার ১টায় নির্ধারিত সময় শেষ হয়। এই সময়ের মধ্যে উপাচার্য পদত্যাগ না করায় তাৎক্ষণিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা।

প্রায় ঘন্টাব্যাপী সড়ক অবরোধের কারণে বরিশালের সাথে আশ-পাশের জেলা শহরগুলো বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। তবে এ সময় ববি শিক্ষার্থীরা শুধু অ্যাম্বুলেন্স যেতে সাহায্য করে।

এর আগে সকাল ১০টা থেকেই শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের নিচ তলায় জড়ো হয়ে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করে। পাশাপাশি উপাচার্যের পদত্যাগ চেয়ে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে।

গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রন না জানানোয় প্রতিবাদ করলে উপাচার্য শিক্ষার্থীদের কটুক্তি করেন। এর প্রতিবাদ ও প্রত্যাহার সহ ১০ দফা দাবীতে আন্দোলন শুরু করে শিক্ষার্থীরা। গত ২৯ মার্চ ভিসি তার বক্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। এতে শিক্ষার্থীরা সন্তুষ্ট না হওয়ায় ভিসির পদত্যাগের একদফা দাবিতে আন্দোলন শুরু হয়।

sheikh mujib 2020