advertisement
আপনি দেখছেন

ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল ডিগ্রি মাদরাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ এবং ইংরেজি প্রভাষকের এমপিও স্থগিত করার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে চিঠি পাঠিয়েছে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর।

feni principle

মাদরাসার অধ্যক্ষ এএসএম সিরাজ উদদৌলা (ইনডেক্স-৩০৪১১১) এবং ইংরেজি প্রভাষক আফসার উদ্দিনের (ইনডেক্স-২০৩০৫০৮) এমপিও স্থগিত করতে বৃহস্পতিবার এ চিঠি পাঠানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়, শ্লীলতাহানি এবং হত্যার ঘটনায় সোনাগাজী থানায় দুটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে অধ্যক্ষ এবং ইংরেজি বিষয়ের প্রভাষক গ্রেপ্তার হওয়ায় তাদের এমপিও স্থগিত হওয়া প্রয়োজন।

মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সফিউদ্দিন আহমদ স্বাক্ষরিত মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, ‘অধ্যক্ষ এএসএম সিরাজ উদদৌলা এবং ইংরেজি বিষয়ের প্রভাষক আফসার উদ্দিনের এমপিও স্থগিত করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মহোদয়কে বিনীতভাবে অনুরোধ করা হলো।’

গত ৬ এপ্রিল সকালে আলিম পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসা কেন্দ্রে যান নুসরাত জাহান রাফি। এ সময় কৌশলে তাকে ভবনের ছাদে ডেকে নেয়া হয় এবং অধ্যক্ষ সিরাজের বিরুদ্ধে তার আনা শ্লীলতাহানির অভিযোগ প্রত্যাহার করে নিতে চাপ দেয়া হয়। কিন্তু রাফি রাজি না হলে তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা। শরীরের ৮০ শতাংশ পুড়ে যাওয়া রাফি বুধবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলের বার্ন ইউনিটে মারা যান।