advertisement
আপনি দেখছেন

বিচারের প্রায় শেষ পর্যায়ে থাকা জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার তদন্ত কর্মকর্তার নিয়োগ যথাযথ হয়নি বলে বিএনপির পক্ষ থেকে দাবী করা হয়েছে। পাশাপাশি এই কারণ দেখিয়ে মামলাটি বাতিলের জন্য হাইকোর্টে আবেদন জানিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

khaleda zia

গতকাল সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর আইনজীবী ব্যারিস্টারর মাহবুব উদ্দীন খোকন হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদন জমা দিয়েছেন বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

উক্ত আবেদনে ছয় বছর আগে দায়ের করা এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক হারুনুর রশিদের নিয়োগে দুদক আইনের ২০ (১) ধারা অনুযায়ী নিয়ম অনুসরণ করা হয়নি দাবি করে মামলার কার্যক্রম বাতিল চাওয়া হয়েছে।

এছাড়াও মামলাটি বাতিল আবেদনে বলা হয়েছে, দুদক আইন-২০০৪ এর ২০(১) ধারায় অনুযায়ী যে কোন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নিয়োগ দেবে অথবা তদন্তের ক্ষমতা দেবে দুর্নীতি দমন কমিশন। তদন্ত কর্মকর্তা (আইও) নিয়োগের একটি গেজেট নোটিফিকেশনও জারি করতে হবে। কিন্তু ২০(১) ধারার লংঘন করে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার আইও হারুনুর রশিদকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তার নিয়োগের কোন গেজেটও জারি করা হয়নি।

তবে মামলাটির সাক্ষ্য চলাকালে আসামিপক্ষের জেরায় হারুনুর রশিদ বলেছেন, ‘তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে আমার নিয়োগেপত্রে স্বাক্ষর করেছেন দুদকের উপ-পরিচালক মো: আকরাম হোসেন। তিনি বর্তমানে আমার সমমর্যদার অফিসার, তবে আমাকে আইও নিয়োগপত্রে স্বাক্ষরের সময় তিনি আমার চেয়ে একধাপ উপরের কর্মকর্তা ছিলেন। এই নিয়োগপত্রে কোন কমিশনারের স্বাক্ষর নেই। আমাকে তদন্তকারী কর্মকর্তা নিয়োগপত্রের কোন অনুলিপি কোন কমিশনারকে দেয়া হয়নি বলেও খালেদা জিয়ার আইনজীবী দাবী করেছেন।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন 

চট্টগ্রামে শিক্ষার্থী হত্যার ঘটনায় ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড

সচিবদের জন্য আরো ১১৪টি নতুন ফ্ল্যাট

সন্ত্রাস দমনে সৌদির পাশে বাংলাদেশ

sheikh mujib 2020