advertisement
আপনি পড়ছেন

রাজধানীতে বাসে উঠতে ভোগান্তির শিকার হতে হয় কমবেশি সবাইকেই। তবে মহিলাদের ক্ষেত্রে এ ভোগান্তি যেন একটু বেশি মাত্রায় দেখা যায়। ভিড় ঠেলে ধস্তাধস্তি করে পুরুষ যাত্রীরা বাসে উঠলেও মহিলারা নিরুপায়। ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়ে থাকতে হয় বাসের জন্য। গতকাল রাস্তায় যোগাযোগ মন্ত্রীকে সামনা-সামনি পেয়ে বিষয়টি অবহিত করলেন শতাব্দি নামের এক শিক্ষার্থী। তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই রাস্তায় মহিলাদের আলাদা বাস সার্ভিসের ঘোষণা দিলেন মন্ত্রী।

womens bus

গতকাল সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে সামনাসামনি পেয়েছিলেন শামসুন্নাহার শতাব্দী নামেএক শিক্ষার্থী।  তিনি প্রশ্ন করেছিলেন, এই সড়কে কি কোনো মহিলা বাসের প্রয়োজন নেই? তার এই প্রশ্নের উত্তরেই মন্ত্রী তৎক্ষনাত মহিলাদের জন্য আলাদা বাস সার্ভিসের ঘোষণা দেন।

মন্ত্রীর সেই ঘোষণা কার্যকর হলো পরের দিন থেকেই। রোববার থেকে রাজধানী শেওড়া বাসস্ট্যান্ড থেকে মহাখালী পর্যন্ত মহিলাদের যাতায়াতের জন্য বিআরটিসির বিশেষ বাস ব্যবস্থা চালু করা হলো।

নিজেদের জন্য আলাদা বাস সার্ভিস পেয়ে শতাব্দির মত সবাই যেন আনন্দিত। আলাদা বাস পেয়ে শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী সামসুন্নাহার শতাব্দীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন সবাই।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন 

অবশেষে মুখ খুললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশ ব্যাংকের কম্পিউটার সারাতে দু’বছর লাগবে!

‘ম্যালওয়ার’-কে সন্দেহ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের!