advertisement
আপনি দেখছেন

বিদেশে বেড়াতে গেলে সবাই তার প্রিয়জনদের খুশি করার জন্য অনেককিছুই নিয়ে আসেন। সে তালিকায় মা-বাবার পাশাপাশি আত্মীয়স্বজন, বন্ধু, প্রিয়জন কেউই বাদ যায় না। উপহারের তালিকাতেও তাকে ভিন্নতা। তবে উপহার হিসেবে পেঁয়াজের কথা অবশ্যই কখনও শুনেননি। এমন কাজটিই করেছেন বেসরকারি ব্যাংকের এক কর্মকর্তা রিনি রাজীউন তিসা। তিনি চীনে বেড়াতে গিয়ে সেখান থেকে মায়ের জন্য উপহার হিসেবে নিয়ে এসেছেন ১১ কেজি পেঁয়াজ!

girl onion chainaব্যাংকার রিনি রাজীউন তিসা

নাগরিক জীবন থেকে খানিকটা ছুটি পেয়ে গত ১৪ নভেম্বর চীন দেশে ঘুরতে তিসা। ঘুরে বেড়িয়েছেন দেশটির আনাচেকানাচে। ফেরার সময় পরিবারের সবার জন্য কেনাকাটা করার পর ভাবলেন মায়ের জন্য কি কেনা যায়? তখন মাকে ফোন দিয়ে জানতে চাইলেন, ‘তোমাদের জন্য কী আনব?’

উত্তরে মা জানায়, কয়েককেজি পেঁয়াজ নিয়ে এসো। ঢাকায় পেঁয়াজের দাম অনেক। তখন মায়ের জন্য অন্যকোনো উপহার না কিনে ৩৮ টাকা করে ১১ কেজি পেঁয়াজ কিনেন তিসা।

তিসা বলেন, ‘সেখানকার একটি দোকান থেকে পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে দেখি তার কাছে ১১ কেজি আছে। সবগুলোই কিনে নিলাম। দোকানি তখন অবাক হয়ে অতিরিক্ত একটা পেঁয়াজ গিফট হিসেবে দিয়েছে। দোকানির হাসি দেখে মনে হয়েছে, এর আগে তার কাছ থেকে কেউ এতো পেঁয়াজ কিনেনি।’

তিনি বলেন, সবসময়ই বাবা-মাকে উপহার দেয়া হয়। কিন্তু এবারের উপহার পেয়ে তারা সবচেয়ে বেশি খুশি হয়েছেন।

এদিকে দেশে ফেরার পরপরই আত্মীস্বজনদের কিছু পেঁয়াজ উপহার হিসেবে দেয়া হয়েছে। পেঁয়াজ উপহার পেয়ে সবাই অনেক খুশি হয়েছেন। দেশে আসার সময় বিমানবন্দর কাস্টমসের লোকেরাও পেঁয়াজ দেখে মুচকি হেসেছিল বলে যোগ করেন তিসা।