advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের (বিপিসি) সঙ্গে বৈঠকের পর পেট্রোল পাম্প মালিক ও শ্রমিকরা তাদের ধর্মঘট ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করেছেন। সোমবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বিপিসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

petrol pump straik2পেট্রোল পাম্প

বাংলাদেশ পেট্রোল পাম্প মালিক সমিতির একাংশের সভাপতি সাজ্জাদুল করিম কাবুল বৈঠকে শেষে তাদের ধর্মঘট স্থগিত করার ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে ১৫ ডিসেম্বর এক আন্তমন্ত্রণালয় বৈঠকের পর পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

জ্বালানি তেল বিক্রির কমিশন বাড়ানো ও ট্যাংক লরিতে পুলিশের হয়রানি বন্ধসহ ১৫ দফা দাবিতে বাংলাদেশ পেট্রোল পাম্প ও ট্যাংক লরি মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ রোববার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট শুরু করে।

পরিষদ গত ২৬ নভেম্বর বগুড়া প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে ১৫ দফা দাবি মেনে নেয়ার জন্য সরকারকে সময় বেঁধে দেয়। তারা জ্বালানি তেল বিক্রিতে সাড়ে ৭ শতাংশ কমিশন, প্রিমিয়াম পরিশোধ সাপেক্ষে ট্যাংক লরির শ্রমিকদের ৫ লাখ টাকা দুর্ঘটনা বিমা প্রথা প্রণয়ন ‍এবং ট্যাংক লরি চলাচলে পুলিশি হয়রানি বন্ধ করার দাবি জানান। ইউএনবি।