advertisement
আপনি দেখছেন

চট্টগ্রামের লালদীঘির মাঠে উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে চেয়ার ভাঙচুর, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া আর মারামারির ঘটনা ঘটেছে। শনিবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

fight in chittagong al conferenceচট্টগ্রামের লালদীঘির মাঠে উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে চেয়ার ভাঙচুর

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন শুরুর আগেই দুই সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশীর অনুসারীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও চেয়ার ছোড়াছুড়ির ঘটনা শুরু হলে লালদীঘি এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় মঞ্চে আমন্ত্রিত অতিথি কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সাত বছর পর অনুষ্ঠিত এ ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে সকাল থেকেই বিভিন্ন স্থান থেকে নেতা-কর্মীরা আসতে শুরু করেন। অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী পর্ব শুরুর আগেই সকাল পৌনে ১০টার দিকে উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গিয়াস উদ্দীনের অনুসারী নেতা-কর্মীরা মাঠে অবস্থান নেন।

এ সময় মিছিল নিয়ে সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী আতাউর রহমানের অনুসারীরা মাঠে প্রবেশ করেন। পরে দুই পক্ষের নেতা-কর্মীদের মধ্যে মারামারি এবং ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হলে সম্মেলনস্থলে চরম বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। তারা আগতদের জন্য রাখা চেয়ারগুলো একে অপরের দিকে ছুড়তে থাকেন।

মঞ্চ থেকে সিনিয়র নেতারা মাইকে সবাইকে শান্ত থাকার অনুরোধ করেও ব্যর্থ হন। পরে পুলিশ মাঠে ঢুকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এরপর বেলা সোয়া ১১টায় জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে সম্মেলন শুরু হয়। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এর উদ্বোধন করেন।

সিএমপির কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহসীন বলেন, ‘সম্মেলনে সকালের দিকে নেতা-কর্মীদের মধ্যে কিছুটা বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। কিছু চেয়ার ভাঙা হয়েছে। পরে আমরা পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেছি।’ ইউএনবি।