advertisement
আপনি দেখছেন

প্রকাশিত রাজাকারের তালিকা সরকারের ‘মনগড়া ও ষড়যন্ত্রের অংশ’ বলে দাবি করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান। মঙ্গলবার চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির উদ্যোগে নগরীর কাজীর দেউরী মোড়ে বিজয় দিবসের র‌্যালিপূর্ব সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

bnp rally ctgবিএনপির উদ্যোগে চট্টগ্রাম নগরীর কাজীর দেউরী মোড়ে বিজয় দিবসের র‌্যালি

আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেন, সরকার যদি মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে আলোচনার মাধ্যমে রাজাকারের তালিকা করতো, তাহলে কোনো ধরনের অভিযোগ থাকত না। এই রাজাকারের তালিকা সরকারের ষড়যন্ত্রের অংশ এবং সরকারের মনগড়া।

বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান করতে না দেয়ায় সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, আশা করা হয়েছিল প্রশাসন নিরপেক্ষ না হলেও মানবিক হবে, কিন্তু এটা হয়নি। ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন যেমন ২৯ তারিখ হয়ে গেছে, ঠিক তেমনি বিজয় দিবসও ১৬ তারিখের পরিবর্তে ১৭ তারিখে পালন করতে হচ্ছে বিএনপিকে।

‘আজকে যদি বিজয় দিবসের র‌্যালি বিজয় দিবসের দিন করার অনুমতি দিতেন, তাহলে সকলের সাথে বিজয় দিবসের আনন্দ ভাগাভাগি করা যেতো। বিজয় দিবস কোনো একক দলের নয়।’ বলেন নোমান।

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, ‘যতদিন খালেদা জিয়া মুক্ত না হবে ততদিন পর্যন্ত বাংলাদেশে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা চলতে থাকবে। দেশনেত্রীকে জেলে রেখে দেশের সংকট দূর হবে না।’

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্করের পরিচালনায় বিজয় দিবসের সমাবেশে বক্তব্য দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় শ্রমবিষয়ক সম্পাদক এ এম নাজিম উদ্দিন, মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দিপ্তী, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ শাহেদ, মহিলা দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফাতেমা বাদশা প্রমুখ। ইউএনবি।