advertisement
আপনি দেখছেন

টানা তিন মেয়াদে রাষ্ট্রক্ষমতায় থাকা আওয়ামী লীগের দুই দিনব্যাপী ২১তম জাতীয় সম্মেলন আজ শুক্রবার উদ্বোধন করবেন দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিকেল ৩টায় ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণে গড়তে সোনার দেশ/এগিয়ে চলেছি দুর্বার, আমরাই তো বাংলাদেশ’ স্লোগানে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

al 21 conference

প্রথমে জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধনের উদ্বোধন করবেন শেখ হাসিনা। এরপর ২৫ মিনিটের একটি উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশন করা হবে। যাতে দলের ইতিহাস-ঐতিহ্য, সরকারের উন্নয়ন-সাফল্য তুলে ধরা হবে।

এবারের সম্মেলনে মহানগর, জেলা, উপজেলা, থানা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায় থেকে ৭ হাজার ৩৩৭ জন কাউন্সিলর ও সমসংখ্যক ডেলিগেট অংশ নিচ্ছেন। আমন্ত্রিত অতিথিদের কাছে দাওয়াতপত্র পৌঁছে দেয়া হয়েছে। এবার অতিথি সংখ্যা প্রায় ৫০ হাজার হলেও থাকছে না বিদেশি অতিথি। সম্মেলনে ৫০ হাজার মানুষের খাবারের ব্যবস্থা করা হবে।

দেশের সার্বিক পরিস্থিতি মাথায় রেখে সম্মেলন নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর পাশাপাশি কাজ করবে দলের প্রশিণপ্রাপ্ত স্বেচ্ছাসেবকরা। এছাড়া সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও এর আশপাশের পুরো এলাকায় ব্যাপক সাজসজ্জা করা হয়েছে, ভরে গেছে ব্যানার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ডে।

এবারের সম্মেলনের সভামঞ্চ বহমান পদ্মার বুকে ৪০টি থামের ওপর দাঁড়িয়ে থাকা স্বপ্নের পদ্মা সেতুের আদলে তৈরি করা হয়েছে। পদ্মা সেতুর নিচে বিশালাকার এক পাল তোলা নৌকা ও অনেকগুলো ছোট ঝোট নৌকা ভাসছে, জাতীয় স্মৃতিসৌধের প্রতিকৃতি রয়েছে উপরের দিকে। এছাড়া বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার বিশাল ছবি, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১, জাতীয় চার নেতার ছবি শোভা পাচ্ছে।

প্রথম দিন নেতাদের বক্তব্যের পরদিন আগামীকাল শনিবার সকাল ১০টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে কাউন্সিল অধিবেশন হবে। এ অধিবেশনেই দলটির পরবর্তী নেতৃত্ব নির্বাচিত এবং নতুন কমিটির নাম ঘোষণা করা হবে। দলীয় নির্ভরযোগ্য সূত্রগুলো বলছে, রাজনৈতিক বাঁক বদলে বড় পরিবর্তনের নতুন নেতৃত্ব আসছে!

সূত্রগুলো বলছে, আগামী তিন বছরের জন্য আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে এবারও শেখ হাসিনাই থাকছেন। আর সাধারণ সম্পাদক পদে দেখা যেতে পারে নতুন মুখ। এ ক্ষেত্রে দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বা সাংগঠনিক সম্পাদক থেকে অথবা আলোচনার বাইরে থেকে কেউ দায়িত্ব পেতে পারেন।

এরই মধ্যে বুধবার রাতে গণভবনে দলটির কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে বিভিন্ন উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক পদ বিলুপ্ত এবং উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যদের সংখ্যা ৪১ থেকে বাড়িয়ে ৫১ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

১৯৪৯ সালের ২৩ জুন রোজ গার্ডেনে জন্ম আওয়ামী লীগের। ঐতিহ্যবাহী দলটির ৬৭ বছরে ২০টি জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

sheikh mujib 2020