advertisement
আপনি দেখছেন

পাবনার ঈশ্বরদীতে ভাড়া নিয়ে র্তকের জেরে এক যাত্রীকে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার লালল শাহ সেতুর টোল প্লাজার কাছে এ নৃশংস ঘটনাটি ঘটে।

lalon shah bridge toll

নিহত যাত্রী মো. সুমন হোসেন (৩৪) উপজেলার পাকশী ইউনিয়নের ঝাউতলা একলার মজিবুর রহমানের ছেলে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, সুমন ওইদিন রাতের বেলা সনি পরিবহন নামের একটি বাসে করে মেহেরপুর থেকে ঈশ্বরদী আসছিলেন। পথে চালকের সহকারীর সঙ্গে ভাড়া নিয়ে বাক-বিতণ্ডা হলে তিনি বাস থেকে নেমে যেতে চান। কিন্তু তাকে চালকের সহকারীরা নামতে না দিয়ে বরং মারধর করে। এই কথা সুমন মারা যাওয়ার আগে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তার বাড়িতে জানিয়েছিলেন।

পরে রাত ৯টার দিকে লালন শাহ সেতু পার হয়ে টোল প্লাজার কাছে আসলে বাসটি গতি কমায়। এ সময় চালকের সহকারীরা সুমনকে পেছন থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিলে ওই বাসের চাকার নিচেই পিষ্ট হন তিনি।

নিহতের চাচাতো ভাই লিটন জানান, স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় সুমনকে প্রথমে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। কিন্তু তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎকরা তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। সেখানে নেওয়ার পথে রাত ১১টার দিকে সুমনের মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে পাকশী হইওয়ে পুলিশের ট্রাফিক সার্জেন্ট আরিফুল ইসলাম জানান, টোল প্লাজা আশেপাশের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে অভিযুক্ত বাসটিকে শনাক্ত করা হয়েছে। চালক ও তার সহকারীসহ বাসটিকে আটক করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ইতোমধ্যে মাঠে নেমেছে।