advertisement
আপনি দেখছেন

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের আগামী তিন বছরের জন্য পরবর্তী কমিটি ঘোষণার প্রক্রিয়া চলছে। দলটির ২১তম জাতীয় সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে বিশেষ কাউন্সিল অধিবেশন উদ্বোধন করেন দলটির সভাপতি শেখ হাসিনা। সম্মেলনের নানা আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিকেল নাগাদ নতুন নেতৃত্বের নাম ঘোষণা করা হবে বলে জানা গেছে। 

al 21 conference 19

এ অধিবেশনে অংশ নেয়া সারাদেশ থেকে আসা আওয়ামী লীগের প্রায় সাড়ে সাত হাজার কাউন্সিলররা মতামতের ভিত্তিতে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন। দলীয় সূত্রগুলো বলছে, এবারও টানা নবমবারের মতো দলটির সভাপতি থাকছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে সাধারণ সম্পাদকসহ সম্পাদকমণ্ডলীর বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ পদে পরিবর্তন আসতে পারে। এসব পদে কারা আসছেন, তা দেখার জন্য বিকেল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

দলীয় একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, এবারের সম্মেলনে নতুন নেতা নির্বাচনের মধ্য দিয়ে আবারও রাজনীতিতে ঘুরে দাঁড়াতে চায় আওয়ামী লীগ। এ জন্য নবীন-প্রবীণের সমন্বয়ে চমকে দেয়ার মতো কমিটি দেয়ার কথা ভাবা হচ্ছে।

টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় থাকায় সরকার ও দল একাকার হয়ে গেছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের নীতি নির্ধারকরা বলছেন, এ দুটিকে আলাদা করা এবং দলে গতিশীল নেতৃত্ব আনার পরিকল্পনা নিয়ে এগুচ্ছেন শেখ হাসিনা। এর অংশ হিসেবে সম্প্রতি শুদ্ধি অভিযান শুরু করেন তিনি। এর ধারাবাহিকতায় দলের সাধারণ সম্পাদক পদেও পরিবর্তন আসতে পারে। তবে বিষয়টি বর্তমান সভাপতি শেখ হাসিনার ওপরই নির্ভর করছে।

a rahman quder a razzak khalid

সূত্রমতে, সাধারণ সম্পাদক ইস্যুতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা কার্যত দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছেন। এক পক্ষ ওবায়দুল কাদেরের পক্ষ নিয়েছেন। অপর পক্ষ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বা সাংগঠনিক সম্পাদক থেকে নতুন কেউ দায়িত্ব দেয়ার পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। উভয় পক্ষ তাদের নিজস্ব বলয়ে বিভিন্ন স্থানে ঘরোয়া বৈঠকও করেছেন।

এবার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকে অন্তত হাফ ডজন কেন্দ্রীয় নেতা সক্রিয় রয়েছেন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় আছেন দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এছাড়া দলটির সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক, আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদও আলোচনায় রয়েছেন।

এর আগে গতকাল শুক্রবার বিকালে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের ২১তম ত্রি-বার্ষিক জাতীয় সম্মেলন শুরু হয়। এর উদ্বোধন করেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এতে সারাদেশ থেকে আসা প্রায় ১৫ হাজার কাউন্সিলর ও প্রতিনিধি অংশ নেন। উদ্বেধনী অনুষ্ঠানে বিএনপিসহ সরকার-বিরোধী দলগুলো অংশ না নিলেও মহাজোটের শরিক ও সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টিসহ মিত্ররা অংশ নিয়েছে।