advertisement
আপনি দেখছেন

যশোরের শার্শা উপজেলার সীমান্তবর্তী ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) ক্যাম্পে হানেফ আলী ওরফে খোকা (৩২) নামে এক বাংলাদেশি যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তার লাশ বর্তমানে ভারতের বনগাঁ হাসপাতাল মর্গে রাখা আছে।

bsf in border

নিহত হানেফ আলী ওরফে খোকা শার্শা উপজেলার অগ্রভুলোট গ্রামের শাজাহান আলীর ছেলে। তিনি গরু ব্যবসায়ী ছিলেন।

তার বাবা শাজাহান আলী বলেন, গত বুধবার রাত থেকে ছেলেকে খুঁজে পাচ্ছিলেন না। পরে জানতে পারেন, বিএসএফ সদস্যরা ক্যাম্পে ধরে নিয়ে গিয়ে তার ছেলের ওপর ব্যাপক মারধর ও নির্যাতন চালায়। অবস্থার অবনতি হলে হাসপাতাল নেয়ার পথে মারা যায় সে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে স্থানীয় ইউপি সদস্য তবিবুর রহমান বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে সীমান্তবর্তী ভারতের মধ্যমগ্রামে মামার বাড়ি চলে যায় খোকা। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে বিএসএফ সদস্যরা তাকে ধরে নিয়ে যায়। সেখানেই তাকে নির্যাতন করে মেরে ফেলা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সঙ্গে যোগাযোগ করে হানেফ আলী ওরফে খোকার লাশ দেশে ফেরত আনার চেষ্টা চলছে বলে জানান তবিবুর রহমান।

যশোর ২১ বিজিবির সুবেদার মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, খবর পাওয়ার পর বিজিবির পক্ষ থেকে বিএসএফের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। তবে এ ব্যাপারে এখনো তারা কোনো কিছু জানায়নি।