advertisement
আপনি দেখছেন

এবার সিলেটের হবিগঞ্জে রায়হান আহমেদ নামে চীন ফেরত এক বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় তাকে জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করার পর নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

hobigonj sadar hospital

বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ওই শিক্ষার্থীকে সন্দেহভাজন হিসেবে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। ইতোমধ্যে তার রক্তের নমুনা নিয়ে তা পরীক্ষা করার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। রেজাল্ট আসলেই বোঝা যাবে তিনি আক্রান্ত কি না।

তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত কোনো রোগী বাংলাদেশে ঢুকতে পারেনি। এই শিক্ষার্থীর মধ্যেও লক্ষণ প্রকাশ পাবে না।

এদিকে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে এক শিক্ষার্থীর হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। অনেকেই তাদের রোগীদের নিয়ে হাসপাতাল ত্যাগ করার চেষ্টা করেন।

জানা যায়, রায়হান আহমেদ চীনের একটি মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী। তিনি হবিগঞ্জ শহরের শায়েস্তানগর এলাকার আব্দুন নুরের ছেলে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের মূল ভূখণ্ডে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া না গেলেও সিঙ্গাপুরে পাঁচ বাংলাদেশি প্রবাসী আক্রান্ত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তারা সবাই দেশটির সেলটার অ্যারোস্পেস হাইটস কনস্ট্রাকশন সাইটের কর্মী।

সম্ভাব্য সংক্রমণ ঠেকাতে সরকারের পক্ষ থেকে নানা ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে স্থল ও বিমানবন্দরে সতর্কতা এবং চীন থেকে কেউ আসতে চাইলে তার ব্যাপারে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে।