advertisement
আপনি দেখছেন

কচুরিপানা খাওয়ার বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে ভুল উদ্ধৃতি দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

planning minister ma mannan 2

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘কচুরিপানা খেতে নয়, বরং এটি নিয়ে গবেষণা করতে বলেছিলাম। পাশাপাশি কাঁঠাল ছোট করার বিষয়েও গবেষণা করতে বলেছি। অথচ দেশের গণমাধ্যমগুলোতে আমার উদ্ধৃতি ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি এই দেশের মানুষ। এখানেই আমার জন্ম। আমার বাবা-মা বাংলাদেশি। আমি কীভাবে কচুরিপানা খাওয়ার কথা বলতে পারি?’

এ সময় উপস্থিত সাংবাদিকদের মন্ত্রী বলেন, মিডিয়ার অবাধ স্বাধীনতা আছে। তাই বলে যা খুশি লেখা যাবে না। আশা করবো এ বিষয়টি ভবিষ্যতে সবাই খেয়াল রাখবেন। যেন সঠিক তথ্যটি মানুষ জানতে পারেন।

এর আগে গতকাল সোমবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এক পদক প্রদান অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী উপস্থিত গবেষকদের কাছে জানতে চান- কচুরিপানার কিছু করা যায় কি না? কচুরিপানার পাতা খাওয়া যায় না কেন। গরু তো খায়। গরু খেতে পারলে মানুষ খেতে পারবে না কেন? মানুষের খাবার উপযোগী করা যায় কিনা এ নিয়ে গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে।

এছাড়া কাঁঠালের আকার ছোট এবং গোল করা যায় কি-না তা নিয়েও গবেষণা করার কথা বলেন মন্ত্রী।

sheikh mujib 2020