advertisement
আপনি দেখছেন

জামিন পাওয়া বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অধিকার বলে দাবি করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল আয়োজিত মানববন্ধনে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

fakhrul 26 march

মির্জা ফখরুল বলেন, বেগম খালেদা জিয়া যে মামলায় কারাগারে আছেন, একই ধরনের মামলায় বর্তমানে জামিনে আছেন আওয়ামী লীগের মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, মহীউদ্দিন খান আলমগীর ও সাবেক মন্ত্রী নাজমুল হুদা। তাই দেশনেত্রীকে আটকে রাখার কোনো আইনি বিধান নেই। তাকে সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে আটকা রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের ঘোষকের সহধর্মিণী, যিনি যুদ্ধ চলাকালীন পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর হাতে বন্দি ছিলেন। যিনি পরবর্তীতে স্বৈরাচারের পতন ঘটিয়ে দেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করেছিলেন। সেই নেত্রীর মুক্তির জন্য স্বাধীনতার ৪৮ বছর পরও মানববন্ধন করতে হচ্ছে। জাতির জন্য এর চাইতে লজ্জার আর কিছু হতে পারে না।

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আটকে রাখা হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, ‘দেশনেত্রীর মুক্তির দাবিতে সমাবেশ করতে দেয়া হয় না, শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করতে দেয় না। অন্যায়ের প্রতিবাদ করা যায় না। দেশকে স্বাধীন করেছি কী এ জন্যই?’

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল সভাপতি আনোয়ার হোসাইন, বিএনপি যুগ্ম-মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন কবির খান, শ্রমিক দল কার্যকরী সভাপতি সালাউদ্দিন সরকার, শ্রমিক নেতা আবুল খায়ের খাজা, শ্রমিক দল যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুল কবির মজুমদার, অর্থ সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।