advertisement
আপনি দেখছেন

বিয়ের নামে প্রতারণা করে তরুণীকে চরে ডেকে নিয়ে গণধর্ষনের ঘটনায় ৬ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সিরাজগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যাল-১ এর বিচারক ফজলে খোদা মো. নাজির এ রায় দেন।

life time jail sirajgonj

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- সদর উপজেলার ভাটপিয়ারী গ্রামের রাসেল আহম্মেদ, সোহেল আহম্মেদ, আব্দুর রাজ্জাক, নাজমুল ইসলাম, নুরু ওরফে নুর ইসলাম (২৩) ও আব্দুল মোমিন। আসামি সোহেল ও মোমিন মামলার শুরু থেকেই পলাতক আছে।

আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট শেখ আব্দুল হামিদ লাবলু গণমাধ্যমকে সাজার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে ভাটপিয়ারী গ্রামের এক তরুণীর সঙ্গে পাশ্ববর্তী পাঁচিল গ্রামের রাসেলের প্রেমের সম্পর্ক হয়। বিয়ে করার নামে প্রতারণা করে ২০১৬ সালের ২০ এপ্রিল মেয়েটিকে চরে ডেকে নেয় সে। এরপর রাসেলসহ আসামিরা তাকে ধর্ষণ করে। পরদিন সকালে স্থানীয়রা মেয়েটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন।

আব্দুল হামিদ লাবলু আরো বলেন, ভিকটিমের ভাই বাদী হয়ে সদর থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। সদর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) বাসুদেব সিনহা মামলার তদন্ত করে আদালতে উল্লেখিত ৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করার পর এই রায় দেওয়া হয়।

এদিকে, দণ্ডিত আসামিদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি বিক্রি করে এক লাখ টাকা আদায় করে ভিকটিমকে দিতে জেলা প্রশাসককে দায়িত্ব দিয়েছেন আদালত।